বশেফমুবিপ্রবিতে অনলাইনে সম্পন্ন হলো ‘ফিশারিজ মাইক্রোবায়োলজি’ তত্ত্বীয় কোর্সঃ


অথর
মনজুরুল ইসলাম সংবাদদাতা   বশফমুবিওপ্র বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত :১৫ মে ২০২০, ৯:০২ অপরাহ্ণ | পঠিত : 204 বার
0
বশেফমুবিপ্রবিতে অনলাইনে  সম্পন্ন হলো ‘ফিশারিজ মাইক্রোবায়োলজি’  তত্ত্বীয় কোর্সঃ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের শিক্ষা কার্যক্রম পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। আশঙ্কা দেখা দিয়েছে সেশনজটের। ঠিক এমন সময়ে দেশে অনলাইন শিক্ষার বিশাল দ্বার উন্মোচন করেছে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(বশেফমুবিপ্রবি)। নতুন এই বিশ্ববিদ্যালয়টি উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুদ্দিন আহমেদের সার্বক্ষণিক তত্ত্বাবধানে ছয়টি বিভাগেই অনলাইনে পাঠদান চলছে। ।ছুটির পর যাতে শুধু সেমিস্টার পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা অংশ নিতে পারবে সেজন্য এ ব্যবস্থা নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ফলে করোনার ছুটির প্রভাব তাদের শিক্ষাজীবনে পড়বে না বলে মনে করেন উপাচার্য। এদিকে অনলাইন প্লাটফর্ম ‘জুম’ এপ্লিকেশনের মাধ্যমে গত ৭মে ফিশারিজ বিভাগের ২য় বর্ষের ‘ফিশারিজ মাইক্রোবায়োলজি’ তত্ত্বীয় কোর্সের উদ্বোধন করেন বিভাগটির শিক্ষক সৈয়দ আরিফুল

হক। গত বুধবার(১৩মে,২০২০) কোর্সটির পাঠদান সম্পন্ন হয়।কোর্সটির তত্ত্বীয় বিষয়ের প্রায় ৭০ ভাগ ক্লাস ছুটির আগেই সম্পন্ন করা হয়। বাকি ৩০ ভাগ ক্লাস অনলাইনে নেওয়া হয়েছে। তত্ত্বীয় ও ব্যবহারিক ক্লাসের লেকচার শিট ইতোমধ্যে পিডিএফ আকারে শিক্ষার্থীদের দিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। জুমে ক্লাস করার পাশাপাশি ফেসবুক মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, নানা কিছুর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন তিনি। এবিষয়ে তিনি বলেন- ‘উপাচার্য মহোদয়ের নির্দেশনায় ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে, শিক্ষার্থীদের প্রাণবন্ত উপস্থিতিতে ফিশারিজ মাইক্রোবায়োলজি (তত্ত্বীয়) কোর্সটির অবশিষ্ট অংশ সম্পন্ন করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।এ কোর্সের অনান্য অধ্যায়গুলোর পাশাপাশি ভাইরাস এবং ইমিউনিটি অধ্যায় গুলো তাদের কাছে খুবই ভালো

লেগেছে বলে আমি আশা রাখি, যা শিক্ষার্থীদের করোনা ভাইরাস সম্পর্কে এবং এই পরিস্থিতিতে নিজেদের ইমিউনিটি কিভাবে বাড়ানো যায় সে বিষয়ে তাদের বিস্তারিত ভাবে জ্ঞান দেয়া হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের মাধ্যমেও তাদের পাঠদানের সার্বক্ষণিক খোজ-খবর নেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের কোন বিষয়ে বুঝতে সমস্যা হলে তা ম্যাসেজের/ভয়েস ম্যাসেজের মাধ্যমে বুঝিয়ে দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও প্রস্তুতিমূলক ছুটির পরে কয়েকদিনের মধ্যে আবারো জুম অ্যাপের মাধ্যমে চাপ্টার ভিত্তিক রিভিউ ক্লাস নেয়া শুরু হবে যা শিক্ষার্থীদের জন্য আরো সহায়ক হবে বলে আশা করছি।’ ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মাহবুব ইমরান বলেন-‘অনলাইনে ‘ফিসারিজ মাইক্রোবায়োলজি ’কোর্সটা করে অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে আমার যে নেতিবাচক ধারণা ছিল তা ভেঙ্গে গেছে। এতো সাবলীলভাবে স্যারেরা ক্লাস গুলো নিয়েছেন যে, আমার মনেই হয়নি আমি অনলাইনে ক্লাস করছি। জুম অ্যাপের পাশাপাশি আমাদেরকে মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ" এ যুক্ত করে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো পুনরায় বুঝিয়ে দিয়েছেন। তিনি সম্পুর্ণ কোর্সটির আবার রিভিউ ক্লাস নিবেন যাতে আমাদের উক্ত কোর্সটিতে কোনো ধরনের সমস্যা না থাকে। ’ আরেক শিক্ষার্থী সম্প্রীতি এনাম বলেন-‘ অনলাইন ক্লাসে ঠিক মতো সব টপিক গুলো বুঝতে পাচ্ছি। ক্লাসরুমে বসে ক্লাস করার থেকে কোনো অংশে কম না অনলাইন এ ক্লাস।বরং অনলাইন এ করা ক্লাস গুলো আরো ভাল হচ্ছে। কোনো নয়েজ হচ্ছে না, মনোযোগও ঠিক থাকছে। ’

No Comments