অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চিংড়ি খাওয়া কি উপকারী? – ডোনেট বাংলাদেশ

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চিংড়ি খাওয়া কি উপকারী?

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২৮ মে, ২০২২ | ৮:১২ 48 ভিউ
অনাগত সন্তানের সুস্থতার জন্য অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় শারীরিক ও মানসিক দু’ভাবেই সুস্থ থাকা জরুরি। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি ক্ষুধা লাগে। আবার হরমোনের ভারসাম্য বিঘ্নিত হওয়ার কারণে এই সময়ে স্বাদেরও পরিবর্তন হয়। তখন ভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ার ইচ্ছে হয়। কিন্তু চাইলেই সব ধরনের খাকার থাওয়া ঠিক নয়। এই সময় খাবারে অনেক বিধিনিষেধ চলে আসে। অনেকেরই ধারণা, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চিংড়ি খাওয়া ভাল নয়। তবে আদৌ কি এই ধারণা ঠিক? চিকিৎসকদের মতে, হবু মায়ের যদি অ্যালার্জির সমস্যা না থাকে তাহলে তিনি নিশ্চিন্তে চিংড়ি মাছ খেতে পারেন। চিংড়ি খেলে কোনও ক্ষতি হয় না বরং হবু মা এবং স্তন্যপান করান এমন মায়েদের শরীরে পুষ্টি জোগাতে এই

সামুদ্রিক মাছ দারুণ উপকারী। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চিংড়ির খেলে আরও যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়- ১. চিংড়ি শরীরের জন প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজের দারুণ উৎস। চিংড়ি মাছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে। ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড প্রসব সংক্রান্ত ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। গর্ভস্থ শিশুর স্বাস্থ্যও ভাল রাখে। ২. চিংড়ি থেকে হবু মায়েরা প্রয়োজনীয় প্রোটিন, ভিটামিন বি-১২ এবং ভিটামিন ডি পেতে পারেন। ৩. চিংড়িতে ভরপুর মাত্রায় আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম থাকে। হবু মা এবং সন্তানের শরীরে রক্তের মাত্রা বাড়াতে এই উপাদানগুলি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। চিকিৎসকদের মতে, যে সব সামুদ্রিক মাছে বেশি মাত্রায় পারদ থাকে সেইগুলি অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় খাওয়া উচিত নয়। শার্ক, টুনা ইত্যাদি মাছে বেশ ভাল পরিমাণে পারদ থাকে। তাই

হবু মায়েদের জন্য এই সব মাছ এড়িয়ে চলাই ভাল। তবে চিংড়ি, স্যামন, তেলাপিয়া, মাগুর, শিং ইত্যাদি মাছে কম মাত্রায় পারদ থাকে। তাই মাঝেমাঝে এই সব মাছ হবু মায়েরা তাদের খাদ্যতালিকায় রাখতেই পারেন।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
টেক্সাসে লরি থেকে ৪৬ জনের মরদেহ উদ্ধার ফিলিপাইনে নোবেল জয়ী সাংবাদিক মারিয়া রেসার নিউজ সাইট বন্ধের নির্দেশ ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন বহুদূর বন্যা : বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসে ফের শঙ্কা তবু থামছে না দামের ঘোড়া সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডের ন্যাটোর সদস্যপদ পেতে সমর্থন দেবে তুরস্ক ক্ষোভে ফুঁসছে সারাদেশ শিক্ষক হেনস্তা ও হত্যা আইএমএফ থেকে ঋণ নিতে চাচ্ছে সরকার বুস্টার ডোজে গতি নেই সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী জাতিসংঘের মহাসাগর সম্মেলনে বাংলাদেশ করোনার সামাজিক সংক্রমণের শঙ্কা পুতিনকে জিততে দেবে না জি-৭ রাশিয়ার হামলায় সেভেরোদনেৎস্কের পর এবার পতনের মুখে লিসিচানস্ক সেন্সরে যাচ্ছে ‘পদ্মার বুকে স্বপ্নের সেতু’ ‘কীর্তিনাশার বুকে অমর কীর্তি’ সিলেটে বন্যার্তদের পাশে বিজিবি সদস্যরা স্বামীকে ছক্কা মারলেন পাকিস্তানের তারকা চরমপন্থা ঠেকাতে বাংলাদেশে স্থানীয় বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দিয়েছে ফেসবুক যেসব কারণে পেপটিক আলসার হয়, চিকিৎসা কলারোয়া পৌর প্রেসক্লাবের কমিটি গঠনঃ সভাপতি ইমরান, সম্পাদক জুলফিকার নির্বাচিত রাণীশংকৈলে​​​​​​​ মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত