অ্যাথলেটিকসে শিরিনের নতুন রেকর্ড - ডোনেট বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসে মেয়েদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার নতুন রেকর্ড গড়েছেন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.২০ সেকেন্ড। তিনি ভেঙে দিয়েছেন ২০০৬ সালে করা বিউটি আক্তারের ২৪.৩০ সেকেন্ডের রেকর্ডটি।

এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফা খাতুন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.৫০ সেকেন্ড। এছাড়া বাংলাদেশ আনসারের কবিতা রায় ২৫.৯০ সেকেন্ড সময় নিয়ে জয় করেছেন ব্রোঞ্জ পদক।

নতুন মাইল ফলক গড়ে শিরিন বলেন, ‘নতুন রেকর্ড গড়ে অনেক ভালো লাগছে। বিউটি আপুর গড়া আগের রেকর্ডটি ভেঙেছি। আসলে আমার অধ্যবসায় আমাকে এই পর্যন্ত নিয়ে এসেছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জিতলাম।’

১০০ ও ২০০ মিটারে নিয়মিত সাফল্যের পাওয়ার পেছনে রহস্য বলতে গিয়ে শিরিন বলেন, ‘কারো একার প্রচেষ্টায় সাফল্য আসে না। এজন্য অনেকেরই অবদান আছে। বিওএ, নৌবাহিনী, বিকেএসপি, ফেডারেশন এমনকি সাংবাদিকদের লেখায়ও অবদান আছে। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি বলেই সাফল্য আসছে। এর জন্য আমাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। নিজের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য আমি ঈদের সময়ও অনুশীলন করে থাকি।’

এদিকে ছেলেদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর নাঈম ইসলাম স্বর্ণপদক জিতেছেন। তিনি দৌড় শেষ করেছেন ২১.৭০ সেকেন্ড সময় নিয়ে। এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফুল। তিনি সময় নিয়েছেন ২১.৮০। এছাড়া ২২.২০ সেকেন্ড সময় ব্রোঞ্জ জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মোতালেব।

২০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতে নাঈম ইসলাম বলেন, ‘জুনিয়র অ্যাথলেট থাকার সময় জহির রায়হান আমাকে কোচিং করিয়েছেন। শেরপুরে আমাদের বাড়ি। এবার গেমসের শুরুতে ১০০ মিটারে অংশ নিয়ে তৃতীয় হয়েছি। ছোট বেলায় অ্যাথলেটিকসে এসেছি। আমার আসলে দৌঁড়াতে ভালো লাগে। অ্যাথলেটিকস আমি উপভোগ করি। তাই এর সঙ্গে আছি। ভবিষ্যতে দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও সাফল্য পেতে চাই।

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসে মেয়েদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার নতুন রেকর্ড গড়েছেন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.২০ সেকেন্ড। তিনি ভেঙে দিয়েছেন ২০০৬ সালে করা বিউটি আক্তারের ২৪.৩০ সেকেন্ডের রেকর্ডটি।

এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফা খাতুন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.৫০ সেকেন্ড। এছাড়া বাংলাদেশ আনসারের কবিতা রায় ২৫.৯০ সেকেন্ড সময় নিয়ে জয় করেছেন ব্রোঞ্জ পদক।

নতুন মাইল ফলক গড়ে শিরিন বলেন, ‘নতুন রেকর্ড গড়ে অনেক ভালো লাগছে। বিউটি আপুর গড়া আগের রেকর্ডটি ভেঙেছি। আসলে আমার অধ্যবসায় আমাকে এই পর্যন্ত নিয়ে এসেছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জিতলাম।’

১০০ ও ২০০ মিটারে নিয়মিত সাফল্যের পাওয়ার পেছনে রহস্য বলতে গিয়ে শিরিন বলেন, ‘কারো একার প্রচেষ্টায় সাফল্য আসে না। এজন্য অনেকেরই অবদান আছে। বিওএ, নৌবাহিনী, বিকেএসপি, ফেডারেশন এমনকি সাংবাদিকদের লেখায়ও অবদান আছে। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি বলেই সাফল্য আসছে। এর জন্য আমাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। নিজের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য আমি ঈদের সময়ও অনুশীলন করে থাকি।’

এদিকে ছেলেদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর নাঈম ইসলাম স্বর্ণপদক জিতেছেন। তিনি দৌড় শেষ করেছেন ২১.৭০ সেকেন্ড সময় নিয়ে। এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফুল। তিনি সময় নিয়েছেন ২১.৮০। এছাড়া ২২.২০ সেকেন্ড সময় ব্রোঞ্জ জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মোতালেব।

২০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতে নাঈম ইসলাম বলেন, ‘জুনিয়র অ্যাথলেট থাকার সময় জহির রায়হান আমাকে কোচিং করিয়েছেন। শেরপুরে আমাদের বাড়ি। এবার গেমসের শুরুতে ১০০ মিটারে অংশ নিয়ে তৃতীয় হয়েছি। ছোট বেলায় অ্যাথলেটিকসে এসেছি। আমার আসলে দৌঁড়াতে ভালো লাগে। অ্যাথলেটিকস আমি উপভোগ করি। তাই এর সঙ্গে আছি। ভবিষ্যতে দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও সাফল্য পেতে চাই।

অ্যাথলেটিকসে শিরিনের নতুন রেকর্ড

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৮ নভেম্বর, ২০২১ | ৮:০১ 54 ভিউ
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসে মেয়েদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার নতুন রেকর্ড গড়েছেন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.২০ সেকেন্ড। তিনি ভেঙে দিয়েছেন ২০০৬ সালে করা বিউটি আক্তারের ২৪.৩০ সেকেন্ডের রেকর্ডটি। এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফা খাতুন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.৫০ সেকেন্ড। এছাড়া বাংলাদেশ আনসারের কবিতা রায় ২৫.৯০ সেকেন্ড সময় নিয়ে জয় করেছেন ব্রোঞ্জ পদক। নতুন মাইল ফলক গড়ে শিরিন বলেন, ‘নতুন রেকর্ড গড়ে অনেক ভালো লাগছে। বিউটি আপুর গড়া আগের রেকর্ডটি ভেঙেছি। আসলে আমার অধ্যবসায় আমাকে এই পর্যন্ত নিয়ে এসেছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জিতলাম।’ ১০০ ও ২০০ মিটারে নিয়মিত সাফল্যের পাওয়ার পেছনে রহস্য বলতে গিয়ে শিরিন বলেন, ‘কারো একার প্রচেষ্টায় সাফল্য আসে না। এজন্য অনেকেরই অবদান আছে। বিওএ, নৌবাহিনী, বিকেএসপি, ফেডারেশন এমনকি সাংবাদিকদের লেখায়ও অবদান আছে। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি বলেই সাফল্য আসছে। এর জন্য আমাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। নিজের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য আমি ঈদের সময়ও অনুশীলন করে থাকি।’ এদিকে ছেলেদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর নাঈম ইসলাম স্বর্ণপদক জিতেছেন। তিনি দৌড় শেষ করেছেন ২১.৭০ সেকেন্ড সময় নিয়ে। এই ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফুল। তিনি সময় নিয়েছেন ২১.৮০। এছাড়া ২২.২০ সেকেন্ড সময় ব্রোঞ্জ জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মোতালেব। ২০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতে নাঈম ইসলাম বলেন, ‘জুনিয়র অ্যাথলেট থাকার সময় জহির রায়হান আমাকে কোচিং করিয়েছেন। শেরপুরে আমাদের বাড়ি। এবার গেমসের শুরুতে ১০০ মিটারে অংশ নিয়ে তৃতীয় হয়েছি। ছোট বেলায় অ্যাথলেটিকসে এসেছি। আমার আসলে দৌঁড়াতে ভালো লাগে। অ্যাথলেটিকস আমি উপভোগ করি। তাই এর সঙ্গে আছি। ভবিষ্যতে দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও সাফল্য পেতে চাই।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: