জমকালো আয়োজনে বাংলাদেশের বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন


অথর
ক্রীড়া অঙ্গন সংবাদদাতা   ডোনেট বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১২ অক্টোবর ২০২১, ৪:৩৮ অপরাহ্ণ | পঠিত : 141 বার
জমকালো আয়োজনে বাংলাদেশের বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন

আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা। এর পরেই মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টির মহারণ। বৈশ্বিক এই আসরের জন্য শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি নিচ্ছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। এর মধ্যেই আজ সোমবার জমকালো আয়োজনে উন্মোচিত হলো বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি। আজ রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশের বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন করা হয়। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে দুইটি জার্সি উন্মোচন করা হয়। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি পাওয়া যাবে আড়ংয়ের প্রতিটি আউটলেটে। এ ছাড়া তাদের অনলাইন স্টোরেও জার্সি পাওয়া যাবে। প্রাপ্তবয়স্কদের জার্সির দাম ধরা হয়েছে এক হাজার ৪০০ টাকা। আর ছোটদের জার্সি পাওয়া যাবে এক হাজার টাকায়। বাংলাদেশের জার্সি তৈরি করেছে স্পোর্টস অ্যান্ড স্পোর্টজ। প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে এবারের বিশ্বকাপ জার্সি তৈরি করা হয়েছে। জার্সির সামনের অংশ তৈরিতে যে সুতো ব্যবহার হয়েছে সেটি রিসাইকেল জ্যাকার্ড ফেব্রিক নামে পরিচিত। যেটি প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে তৈরি। সামনে ও পেছনের অংশ আলাদা। পেছনের অংশ বানানো হয়েছে ম্যাশ ফেব্রিক থেকে। যেটাতে বাতাস আসা যাওয়ার (এয়ার সার্কুলেশনের) ব্যবস্থা আছে। আরব আমিরাতের গরমের কথা বিবেচনা করেই এমন জার্সি বানানো হয়েছে। জার্সির কাঁধের অংশ লালের আবহ আর পুরোটা জুড়ে সবুজ। ২০০৪-০৫ সালের জার্সির অনুকরণে বানানো হয়েছে এবারের জার্সি। যেটি ২০০৫ সালে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজে পরেছিল বাংলাদেশ। তবে পুরোপুরি কপি করা হয়নি। ওই জার্সিটির সঙ্গে সাদৃশ্য রেখে বানানো হয়েছে। জার্সির ব্যাপারে সাবেক অধিনায়ক ও ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, ‘আমরা যখন ক্রিকেট খেলতাম, তখন কোচরা আমাদের ব্যাট ও বল নিয়েই চিন্তা করতে বলতো। বর্তমান ক্রিকেটে খাবার যেমন গুরুত্বপূর্ণ, জার্সিও তেমন গুরুত্বপূর্ণ। যত স্বস্তিদায়ক জার্সি পাওয়া যায়, ততোই আমদের জন্য ভালো।’ ব্র্যাক এন্টারপ্রাইজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তামারা হাসান আবেদ বলেছেন, ‘১৩ অক্টোবর থেকে আড়ংয়ের আউটলেটে জার্সি পাওয়া যাবে। ১১ অক্টোবর থেকে প্রি অর্ডার নেওয়া হবে। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যেও জার্সি পাওয়া যাবে। জাতীয় দলের জার্সি বিক্রি করে আয় হলে ব্র্যাকের উন্নয়নে ব্যয় করা হবে।’ এবারের বিশ্বকাপে প্রাথমিক পর্বের দুই গ্রুপে অংশ নেবে আটটি দল। দলগুলো হলো—বাংলাদেশ, আয়ারল্যান্ড, নামিবিয়া, নেদারল্যান্ডস, ওমান, পাপুয়া নিউগিনি, স্কটল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। প্রথম রাউন্ডে ভালো করে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করতে হবে বাংলাদেশসহ এই আট দলকে। অন্যদিকে, সুপার টুয়েলভে দুই গ্রুপে আছে আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাদের সঙ্গে যোগ দেবে প্রাথমিক পর্বের সেরা চার দল। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের খেলা। প্রথম রাউন্ডের উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। প্রথম দিনে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। দ্বিতীয় রাউন্ড গড়াবে ২৩ অক্টোবর থেকে। ওই দিন অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার লড়াই দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্ব। একই দিনে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ।







Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Ok