ধর্ষণ মামলার সাক্ষী দিতে এসে নিজেই শিকার, গ্রেফতার ২ - ডোনেট বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে ধর্ষণর মামলার সাক্ষী দিতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন এক নারী। এই ঘটনায় ভিকটিম নারী চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহ থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ১০ জনের বিরুদ্ধে গত বছরের ৩০ নভেম্বর একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এই মামলার দুই আসামিকে মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থানার বাংলাবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতার দুই আসামি হলেন- বায়েজিদ বোস্তামী থানার জামতলা এলাকায় মৃত জালালের ছেলে মো. কিরন (৩৭) ও ডেবারপাড় এলাকার নুর নবীর ছেলে মো. সোহাগ মিয়া (৩৫)। সোহাগের বিরুদ্ধে বায়োজিদ বোস্তামী থানায় তিনটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
বুধবার (১৭ নভেম্বর) র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, আকবরশাহ থানায় মামলা দায়েরের পর থেকেই র‌্যাব আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে ছায়া তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থেকে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

গত ৮ জানুয়ারি এই ধর্ষণ মামলার আরও দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব।

চট্টগ্রামে ধর্ষণর মামলার সাক্ষী দিতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন এক নারী। এই ঘটনায় ভিকটিম নারী চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহ থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ১০ জনের বিরুদ্ধে গত বছরের ৩০ নভেম্বর একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এই মামলার দুই আসামিকে মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থানার বাংলাবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতার দুই আসামি হলেন- বায়েজিদ বোস্তামী থানার জামতলা এলাকায় মৃত জালালের ছেলে মো. কিরন (৩৭) ও ডেবারপাড় এলাকার নুর নবীর ছেলে মো. সোহাগ মিয়া (৩৫)। সোহাগের বিরুদ্ধে বায়োজিদ বোস্তামী থানায় তিনটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
বুধবার (১৭ নভেম্বর) র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, আকবরশাহ থানায় মামলা দায়েরের পর থেকেই র‌্যাব আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে ছায়া তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থেকে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

গত ৮ জানুয়ারি এই ধর্ষণ মামলার আরও দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব।

ধর্ষণ মামলার সাক্ষী দিতে এসে নিজেই শিকার, গ্রেফতার ২

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৮ নভেম্বর, ২০২১ | ১২:৩৭ 37 ভিউ
চট্টগ্রামে ধর্ষণর মামলার সাক্ষী দিতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন এক নারী। এই ঘটনায় ভিকটিম নারী চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহ থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ১০ জনের বিরুদ্ধে গত বছরের ৩০ নভেম্বর একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এই মামলার দুই আসামিকে মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থানার বাংলাবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতার দুই আসামি হলেন- বায়েজিদ বোস্তামী থানার জামতলা এলাকায় মৃত জালালের ছেলে মো. কিরন (৩৭) ও ডেবারপাড় এলাকার নুর নবীর ছেলে মো. সোহাগ মিয়া (৩৫)। সোহাগের বিরুদ্ধে বায়োজিদ বোস্তামী থানায় তিনটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। বুধবার (১৭ নভেম্বর) র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, আকবরশাহ থানায় মামলা দায়েরের পর থেকেই র‌্যাব আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে ছায়া তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে বায়েজিদ বোস্তামী থেকে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। গত ৮ জানুয়ারি এই ধর্ষণ মামলার আরও দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: