পশ্চিমে বাড়ছে ‘মানবিক’ বিয়ে, এই বিয়ে আসলে কী?


অথর
আর্ন্তজাতিক সংবাদদাতা   ডোনেট বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১১ এপ্রিল ২০২১, ৪:৩৫ অপরাহ্ণ | পঠিত : 133 বার
পশ্চিমে বাড়ছে ‘মানবিক’ বিয়ে, এই বিয়ে আসলে কী?

মানবিক বিয়ে যুক্তরাজ্যে বহুল প্রচলিত একটি বিষয়। প্রতি বছর ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে এক হাজার মানবিক বিয়ে হয়। অনেকেই এখন মানবিক বিয়ের প্রতি ঝুঁকছেন। তবে মানবিক বিয়ে জিনিসটা কী সে বিষয়ে আগে জানা দরকার। মানবিক বিয়ে: ধর্মীয় রীতি নীতি না মেনে যে বিয়ে হয় মূলত সেই বিয়েই হলো মানবিক বিয়ে। যেকোনও দিন যেকোনও সময় এই বিয়ে হতে পারে। একজন মানবতাবাদী একটি স্ক্রিপ্ট লেখেন দম্পতির জন্য। এছাড়া বাড়তি কোনও নিয়ম বিয়েতে মানা হয় না। এ্ ধরনের বিয়েতে দুজনের ভালোবাসাই প্রাধান্য পায়। মানতেই হবে বা করতেই হবে এই বিয়েতে এমন কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। মানবতাবাদীর বিশ্বাস: একজন ‘মানবতাবাদী’ এমন একজন ব্যক্তি যিনি ধর্মীয় বিশ্বাস ছাড়াই তার জীবনযাপন বেছে নেন। মানবতাবাদীরা বিশ্বাস করেন যে কোন ধর্মের যে নির্ধারিত নিয়ম থাকে তা মেনে চলার পরিবর্তে নৈতিক মূল্যবোধের মতো বিষয়গুলো অসুসরণ করা জরুরি। মানবতাবাদী বেশিরভাগ ধর্মে বিশ্বাস করে না। এর অর্থ এই নয় যে ধার্মিকরা মানবিক বিয়েতে বিশ্বাসী হয় না। অনেকে আছেন ধর্মের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত হয়েও মানবিক বিয়ে করেন বা মানবিক বিয়েতে বিশ্বাসী। বিয়ে ও মানবিক বিয়ের পার্থক্য: বিয়ে ও মানবিক বিয়ের যে প্রধান পার্থক্য আছে তা হলো একটিতে ধর্মীয় রীতি মানা হয় আর একটিতে মানা হয় না্। অনেকে আইনগত বিয়ে পচ্ছন্দ করেন আবার অনেকে মানবিক বিয়েতে বিশ্বাসী। যাদের ভাগ্য সাথে থাকে তাদের ক্ষেত্রে মানবিক বিয়ে অনেক ফলপ্রদ হতে পারে আবার অনেকের জন্য মানবিক বিয়ে খারপ পরিণতি এনে দেয়। বিয়েতে যেমন অনেক বাধ্যবাধকতা থাকে মানবিক বিয়ে পুরোপুরি তার বিপরীত। কোন বাঁধা ধরা নিয়ম ছাড়াই মানবিক বিয়ে হয় যেখানে শুধুমাত্র দুজনের প্রতি দুজনের ভালোবাসা প্রাধান্য পায়। মানবিক বিয়েতে কী হয়? দুজনের উপস্থিতি পরিচিতি ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ বাদে প্রেম ও ভালোবাসার প্রতিশ্রুতি দম্পতির গল্প ( তারা যেভাবে একে অন্যের সাথে পরিচিত হয়) দম্পতির কাছে বিয়ে মানে কী গান বা কবিতার আয়োজন দম্পতির প্রতিশ্রুতি অর্থপূর্ণ প্রতীকী কাজ আংটি বিনিময় বিবাহের পর আনন্দ উল্লাস শুভেচ্ছাবাণী সমাপ্তি প্রতীকী কাজ মানবিক বিয়ের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। দুজনের হাত বেঁধে দেওয়া, মোমবাতি জ্বালানোর মতো কিছু আয়োজন করা হয়। নিছক আনন্দ উদযাপনের জন্যই এমনটা করা হয়। সবশেষে মানবিক বিয়ের সুবিধা নিয়ে বলতে গেলে বলা যায় কোন বিধি নিষেধ ছাড়াই অনুষ্ঠিত হয় এই বিয়ে। দম্পতির দুজনই যদি মানবিক বিয়েতে আগ্রহী হয় তবে তারা কোনও পিছুটান ছাড়াই এই বিয়েতে অংশ নিতে পারে।







No Comments

আরও পড়ুন