বাড়ছে করোনার প্রকোপ স্বাস্থ্যবিধির ওপর কড়াকড়ি আরোপের সময় এসেছে – ডোনেট বাংলাদেশ

বাড়ছে করোনার প্রকোপ স্বাস্থ্যবিধির ওপর কড়াকড়ি আরোপের সময় এসেছে

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২৭ জুন, ২০২২ | ৯:৫৮ 139 ভিউ
কিছুদিন স্বস্তিতে কাটলেও হঠাৎ করোনার প্রকোপ বৃদ্ধির মূল কারণ মানুষের উদাসীনতা। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৫ শতাংশ ছাড়িয়ে যাওয়ার তথ্য থেকেই স্পষ্ট পরিস্থিতি কোন্দিকে যাচ্ছে। ২০ জুনের আগে টানা ২০ দিন দেশে করোনায় কেউ মারা যায়নি। ২০ জুন করোনায় একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এরপর থেকে কয়েকদিন করোনায় একজন করে মৃত্যু হয়েছে। এরপর একদিনে তিনজনের মৃত্যু হওয়া এবং সহস্রাধিক মানুষের করোনা শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখনই সবাইকে সতর্ক হতে হবে। করোনা মোকাবিলায় কী করণীয়, তা কমবেশি সবারই জানা আছে। এখন দরকার সবাইকে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেওয়া। লক্ষ করা গেছে, কর্তৃপক্ষ কঠোর পদক্ষেপ না নিলে বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে

খুব একটা দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেয় না। কাজেই পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করার আগেই কর্তৃপক্ষের উচিত যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া। করোনার প্রকোপ কমে আসায় দেশে বিভিন্ন খাতের ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য যখন নানা চেষ্টা চলছে, তখন নতুন করে পরিস্থিতির অবনতির বিষয়টি উদ্বেগজনক। দেশে গত কয়েকদিনে শনাক্তের যেসব খবর পাওয়া যাচ্ছে, বাস্তবে এ সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে। কারণ অনেকের উপসর্গ থাকলেও পরীক্ষা করাচ্ছেন না। দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ছয় দফা ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে সরকারের করোনাসংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। কাজেই এখন আমাদের বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে হবে। সবাই সতর্ক থাকলে করোনার নতুন ঢেউ সীমিত রাখা কঠিন কোনো কাজ নয়। দেশে সংক্রমণ কমে

আসায় আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়; তুলে নেওয়া হয় করোনাকালীন বিধিনিষেধ। করোনার প্রকোপ যাতে না বাড়ে সেজন্য শিক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে। এখনো ১২ বছরের নিচের শিশুরা টিকা পায়নি। কাজেই কম বয়সি শিক্ষার্থীদের ঝুঁকিমুক্ত রাখতে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। দেশে এমন এক সময় করোনার প্রকোপ বাড়ছে, যখন ভয়াবহ বন্যার ক্ষতি মোকাবিলায় বিভিন্ন এলাকার মানুষ দিশেহারা। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টগুলো মানুষের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে সহজেই ফাঁকি দিতে সক্ষম। ফলে টিকা নেওয়া ব্যক্তিরাও নতুন ভ্যারিয়েন্ট দ্বারা আক্রান্ত হচ্ছেন। বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা, আগামী দিনে নতুন সাব-ভ্যারিয়েন্ট তুলনামূলক বেশি সংক্রমণশীল হবে। কাজেই সংক্রমণ এড়াতে সবাইকে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। করোনার কারণে

দেশের প্রধান রপ্তানি খাতগুলোতেও নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে রপ্তানির নতুন বাজার খুঁজতে হবে এবং রপ্তানি খাতে বৈচিত্র্য আনার পদক্ষেপ নিতে হবে। দেশের সব ধরনের উদ্যোক্তা যাতে সংকটময় পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারেন, সেজন্য আগে থেকেই যথাযথ প্রস্তুতি নিতে হবে। করোনার নতুন ঢেউ মোকাবিলায় সবাইকে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
সমাবেশের জন্য কমলাপুর স্টেডিয়াম চেয়েছে বিএনপি বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ে তালা, রাস্তায় ব্যারিকেড মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই র‌্যাব সদস্যসহ নিহত ৩ বাসা থেকে ফখরুলের জন্য নাস্তা নিয়ে গেছে ডিবি কার্যালয়ে গভীর রাতে মির্জা ফখরুলকে তুলে নেওয়ার ঘটনার বর্ণনা দিলেন স্ত্রী ঠাণ্ডা মাথায় যা করার, সেটাই করছি: নুসরাত ‘সেখানে থাকবে, খিচুড়ি পাক হবে, দেশ পাল্টে দেবে’ অস্ত্রগুলিসহ কলারোয়ার হৃদয় হোসেন নড়াইলে আটক বিএনপি ও জামায়াতের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে কলারোয়া উপজেলা আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল নওগাঁয় টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট ভবন নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন। তারাকান্দায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ: ৩৬ নেতাকর্মির নামে মামলা গাঁজাসহ রাবি ছাত্রলীগের চার নেতা আটক মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে বাসা থেকে তুলে নেওয়ার অভিযো বিএনপির সমাবেশস্থল নিয়ে দ্বন্দ্ব, যা বললেন পুলিশ কর্মকর্তা হারুন বিএনপি নেতা-কর্মীদের মুক্তির বিষয়ে পুলিশের আশ্বাস ডলার সংকটে কাঁচামাল আমদানি আরও নিম্নমুখী মার্কিনিদের জন্য সতর্কতা জারির পরিস্থিতি হয়নি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশের অযুত সম্ভাবনা বিপদাপন্ন করে তোলা হয়েছে অবশেষে নয়াপল্টন থেকে সরে এলো বিএনপি রোকেয়া দিবস আজও তিনি নারীসমাজের পথপ্রদর্শক