বিএনপির সন্ত্রাস ঠেকাতে রাজপথে থাকবে আ’লীগ: ড. আব্দুর রাজ্জাক – ডোনেট বাংলাদেশ

বিএনপির সন্ত্রাস ঠেকাতে রাজপথে থাকবে আ’লীগ: ড. আব্দুর রাজ্জাক

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ৮:৩৮ 24 ভিউ
বিএনপির কর্মসূচি ঘিরে বিভিন্ন স্থানে চলছে সংঘাত, রক্তারক্তি। এ প্রেক্ষাপটে বিএনপি বলছে, সহিংসতা করে আওয়ামী লীগ আর ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ বলছে, বিএনপির সন্ত্রাস মোকাবিলা করা হবে রাজপথেই। দুই রাজনৈতিক দলের মাঠ দখলের লড়াইয়ে চড়েছে উত্তেজনার পারদ আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বিএনপির সন্ত্রাস প্রতিরোধে রাজপথে থাকবে আওয়ামী লীগ। সেই সঙ্গে দেশজুড়ে শান্তিময় পরিবেশ রক্ষায় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে চিহ্নিত অশুভ, অপশক্তির বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিরোধও গড়ে তুলবে আওয়ামী লীগ। তিনি বলেছেন, সন্ত্রাস-অস্ত্রবাজি, গ্রেনেড হামলা ও ষড়যন্ত্রের মতো নেতিবাচক রাজনীতির মানসিকতা ছেড়ে বিএনপিকে দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের আচরণ করতে হবে। গতকাল সোমবার ড. আব্দুর রাজ্জাক

একান্ত সাক্ষাৎকারে এ সব কথা বলেন। তাঁর সঙ্গে কথা বলেছেন নগর সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী ## :আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপির কর্মসূচিতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে কী বলবেন? ড. আব্দুর রাজ্জাক :নির্বাচিত সরকারকে মানতে চাইছে না বিএনপি। তারা সব সময় এটা অস্বীকার করে আসছে। এখন তারা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে। সরকারের পতন চাইছে। এ জন্য দেশজুড়ে অরাজকতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্রও করছে। অস্থিরতা সৃষ্টির পাঁয়তারা চালাচ্ছে। সুস্থ মানসিকতার কেউই বিএনপির এই ধরনের অপতৎপরতাকে সমর্থন জোগাচ্ছে না। ফলে সাধারণ মানুষ বিএনপির অপকর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। সেই ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দেশে শান্তিময় পরিবেশ রক্ষায় প্রতিরোধ গড়ে তুলছেন। তবে তাঁরা বিএনপির কর্মসূচিতে হামলা করছেন না। ## :বিএনপির কর্মসূচি

ঘিরে পুলিশের ভূমিকাকে প্রশ্নবিদ্ধ মনে করছেন কিনা? ড. আব্দুর রাজ্জাক :বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল-সমাবেশের নামে অস্থিরতা সৃষ্টি করছেন। তাঁরা মারমুখো অবস্থানে যাচ্ছেন। জনজীবনে অশান্তি ডেকে আনার অপপ্রয়াস চালাচ্ছেন। জনগণের জানমাল ধ্বংসের ষড়যন্ত্র করছেন। কথিত আন্দোলনের নামে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের ওপর হামলাও চালাচ্ছেন। এ অবস্থায় পুলিশ আত্মরক্ষা করবে, এটাই স্বাভাবিক। জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার বেলায় সচেষ্ট থাকবে, এটাই বাস্তবতা। এরই ধারাবাহিকতায় পুলিশ জনগণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ভূমিকা নিচ্ছে। ## :আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হঠাৎ করে অশান্ত হয়ে উঠছেন বলে কেউ কেউ মনে করছেন। আপনার কাছে কী মনে হয়? ড. আব্দুর রাজ্জাক :আওয়ামী লীগ শান্তিতে বিশ্বাসী, বিশৃঙ্খলায়

নয়। অকারণে বিএনপি মারমুখো হয়ে পড়ছে। তারা আবারও সেই ২০১৩-১৪ সালের মতো আন্দোলনের নামে আগুন-সন্ত্রাসের পুনরাবৃত্তি শুরু করেছে। ভোটে আওয়ামী লীগকে হারানো সম্ভব নয় বলে তারা এখন থেকেই আগামী নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার চক্রান্ত করছে। আওয়ামী লীগ তাদের ওপর হামলা করছে বলে অপবাদ দিচ্ছে। তাদের নেতাকর্মীরা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছেন। এ অবস্থায় তাদের সন্ত্রাস প্রতিরোধে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দেশ ও জনগণের অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে রাজপথে সক্রিয় থাকবেন। ## :আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপিকে সহিংসতার দিকে ঠেলে দেওয়ার অভিযোগ বিএনপির। এ ব্যাপারে কী বলবেন? ড. আব্দুর রাজ্জাক :হাস্যকর অভিযোগ। দুনিয়ার কোনো দেশের সরকারি দল এমনটা করে! কোনো সরকারি দল কী চায়, দেশকে অস্থির করতে? দেশে

সংঘাতপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করতে? আওয়ামী লীগ সরকার কেন বিএনপিকে সহিংসতার দিকে ঠেলে দেবে? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার শান্তি চায়, স্বস্তি প্রত্যাশা করে। বিএনপি আন্দোলন করুক। তবে আন্দোলনের নামে সহিংসতার ষড়যন্ত্র করা হলে জনগণের জানমাল রক্ষায় যা কিছু করার প্রয়োজন সরকার তাই করবে। ষড়যন্ত্রের পথ ছেড়ে বিএনপিকে নির্বাচনের পথে আসতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। ## :সহিংসতা এড়াতে বিএনপির উদ্দেশে কিছু বলবেন? ড. আব্দুর রাজ্জাক :বিএনপিকে দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের মতো দায়িত্ব পালন করতে হবে। আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকতে হবে। '৭৫-এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার- এই ধরনের ষড়যন্ত্রমূলক স্লোগান পরিহার এবং নেতিবাচক রাজনীতির মানসিকতা ছাড়তে হবে। বিএনপি নেতারা অকারণে অশ্নীল ভাষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

সমালোচনা করেন। এমন অভদ্রোচিত আচরণ বর্জন করতে হবে। সন্ত্রাস, গ্রেনেড হামলা, অস্ত্রবাজি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি ছেড়ে আলোকিত রাজনীতির গতিধারায় নিজেদের সম্পৃক্ত করতে হবে। আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করার গভীর চক্রান্ত করছে বিএনপি। এটা তো সুস্থ রাজনীতির বহিঃপ্রকাশ নয়। ## :রাজনৈতিক সহিংসতা এড়াতে আওয়ামী লীগের আগামী দিনের ভূমিকা কী হবে? ড. আব্দুর রাজ্জাক :কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতাকর্মী সব সময়ই সহনশীল ও নমনীয়। আপত্তিকর স্লোগান ও প্রধানমন্ত্রীকে অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দ করার পরও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নিজেদের শান্ত রেখেছেন। ধৈর্যেরও একটা সীমা আছে। তবে রাজনৈতিক সহিংসতা এড়ানোর প্রয়োজনে আওয়ামী লীগ আরও সংযত হবে। কখনোই অতি উৎসাহী হবে না। বিএনপির যে কোনো ষড়যন্ত্র

ও উস্কানির বিরুদ্ধে শান্ত থাকবে। কখনোই উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করবে না।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
ওডেসায় সামরিক স্থাপনায় আঘাত হানল রাশিয়ার ড্রোন হাজারীবাগে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ রাশিয়ার স্কুলে ভয়াবহ হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ বিপিএলে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক কত, জানাল বিসিবি ‘বড় ভাইদের আশ্বাসে’ অনশন বাতিল করে ক্যাম্পাসে ফিরলেন ইডেনের সেই নেত্রীরা উপস্থাপনায় অপু বিশ্বাসের অভিষেক উন্মুক্ত হলো ‘শেখ হাসিনা- অ্যা ট্রু লিজেন্ড’ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র খালেদা জিয়াকে নিয়ে এবার স্প্যানিশ শিল্পীর গান সাংবাদিক রণেশ মৈত্র না ফেরার দেশে সাগর-রুনি হত্যা: ৯২ বারের মতো পেছাল তদন্ত প্রতিবেদন গুণগতমান সম্পন্ন বীজআখ উৎপাদন ও বিস্তারের কৌশল শীর্ষক ফরিদপুর চিনিকলে দিন ব্যাপি কর্মশালা কেন্দুয়ায় কৃষকলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত করোনায় একদিনে ছয়জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭১৮ করতোয়ায় নৌকাডুবিতে মৃ‌ত বেড়ে ৩৯ জাইকার ৬০ কোটি ডলার বাজেট সাপোর্টের আশা রাশিয়ায় স্কুলে বন্দুক হামলায় নিহত ৬, আহত ২০ হারুন পেলেন মোটরসাইকেল, বাহার আনারস, দারা চশমা বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়ন শীর্ষে জনপ্রশাসন, তলানিতে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় ব্লক মার্কেটে ৭৭ কোটি টাকার লেনদেন আমরণ অনশনের হুমকি ইডেন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃতদের