ভোটযুদ্ধে দুই সহোদর – ডোনেট বাংলাদেশ

ভোটযুদ্ধে দুই সহোদর

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৭:৫৫ 216 ভিউ
মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় চতুর্থ ধাপে ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ২৬ ডিসেম্বর। মঙ্গলবার ছিল প্রতীক বরাদ্দের দিন। প্রতীক নিতে প্রার্থী-সমর্থক আর ভোটারের মিলনমেলা বসেছিল উপজেলা চত্বরে। উপজেলার প্রাচীন জমিদার বাড়িখ্যাত বালিয়াটি ইউপিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহেল আর মীরান একান্নভুক্ত পরিবারের আপন দুই ভাই। প্রতীক নিতে আসা দুই ভাইয়ের পেছনে ছিল ভোটার আর কর্মী-সমর্থকের বিশাল মিছিল। আনারস আর মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন দুই সহোদর সোহেল ও মীরান। দুই ভাই ছাড়াও এখানে রয়েছেন একাধিক প্রার্থী। কে জিতবে আর কে হারবে উপজেলাজুড়ে এমনি নানা আলোচনার খোরাক হয়েছেন দুজনে। প্রয়াত পিতার জনপ্রিয়তা কাজে লাগাতে প্রার্থী হয়েছেন দুই পুত্র মীর সোহেল চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট মীর আনিসুজ্জামান চৌধুরী। তাদের বাবা

মো. আরশেদ আলী চৌধুরী ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭১-পরবর্তী দুঃসময়ে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের হাল ধরেছিলেন আরশেদ আলী চৌধুরী। জমিদার আমলের ঐতিহাসিক বালিয়াটি ঈশ্বরচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষ প্রধান শিক্ষক হিসেবে সুনাম ছিল তার। মরহুম আরশেদ আলী চৌধুরীর দুই পুত্র; একান্নভুক্ত পরিবারে শান্তিতে বসবাস দুই ভাইয়ের। উপজেলার বালিয়াটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নিজেকে উপযুক্ত মনে করেন দুইজনেই। আর তাই জনপ্রিয়তার অগ্নিপরীক্ষায় নেমেছেন দুই ভাই সোহেল ও মীরান। চতুর্থ ধাপে ইউপি নির্বাচনে সাটুরিয়া উপজেলায় মঙ্গলবার ছিল প্রতীক বরাদ্দের দিন। এতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মীর সোহেল চৌধুরী পেয়েছেন আনারস প্রতীক আর ছোটভাই মীর আনিসুজ্জামান মীরান পেয়েছেন মোটরসাইকেল প্রতীক। এ ব্যাপারে মীর সোহেল জানান,

বাবার ভালোবাসার মানুষগুলো আমাকে ইউপি চেয়ারম্যান বানাতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করছেন। সেই জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে বাল্যবিয়ে আর মাদকমুক্ত মডেল ইউনিয়ন গড়তে আমি প্রতিজ্ঞা করছি। প্রশাসনের নিরপেক্ষতা থাকলে ভোটাররাই জনপ্রিয়তার প্রমাণ করবেন।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
‘তুফান ঘটক’ আশরাফ সুপ্ত রাশিয়াকে ড্রোন দেওয়ার দাবি আবারও প্রত্যাখ্যান করল ইরান চার অঞ্চল অন্তর্ভুক্তির বিল রাশিয়ার পার্লামেন্টে অনুমোদন রাশিয়াকে ড্রোন দেওয়ার দাবি আবারও প্রত্যাখ্যান করল ইরান মোগল আমলে নির্মিত সাত গম্বুজ মসজিদ পরিবেশ সুরক্ষার দায়িত্ব সবার র‍্যাব সংস্কারের প্রশ্ন: কিছু কথা পরিশ্রমের সময় বুকে ব্যথা, কী করবেন? সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে সেতুর রেলিংয়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কা,নিহত ৩ সতর্কবার্তা ৬ বছর আগেই ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হবেন ‘রানঅফ’ ভোটে, এটি কেমন পদ্ধতি? রুশ সেনাদের স্থাপনার তালিকা যুক্তরাষ্ট্রকে দিতে চায় ইউক্রেন পারমাণবিক কেন্দ্রের প্রধানকে ছেড়ে দিয়েছে রাশিয়া নপির শাসনামলের ১০০ দিনের আমলনামা তুলে ধরলেন জয় একটাই দাবি এই সরকারকে বিদায় করতে হবে: অলি বাংলাদেশের গণতন্ত্র নিয়ে আপনাদের এত মাথাব্যথা কেন: ওবায়দুল কাদের সুইপারকে হোটেলে নাস্তা খেতে না দেওয়ায় মানববন্ধন ’৭১-এর গণহত্যার স্বীকৃতির দাবিতে কানাডায় সমাবেশ আবুধাবিতে নানা আয়োজনে চলছে শারদীয় দুর্গাপূজা ব্যবসার পরিবেশ সহজীকরণ: দুর্নীতি ও আমলাতান্ত্রিক জটিলতা দূর করা জরুরি