মাতাল বরযাত্রী নিয়ে বিয়ের আসরে মদ্যপ বর, অতঃপর - ডোনেট বাংলাদেশ

মদ খেয়ে মাতাল অবস্থায় বিয়ে আসরে এসেছিলেন এক যুবক। তিনি এতোটাই মাতাল ছিলেন যে ঠিকমতো দাঁড়াতেই পারছিলেন না। শুধু হবু বরই নন, বরযাত্রীর অনেকেই ছিলেন মাতাল।

হবু শ্বশুরবাড়ির সবার এই দশা দেখে ওই তরুণী বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজগড় জেলার সুথালিয়ায় ৭ নভেম্বর এই ঘটনা ঘটে বলে দেশটির একটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কনের বাড়িতে বরযাত্রী আসার পর দেখা পর দেখা যায়, বরপক্ষের অনেকে, এমনকি বর নিজেও মাতাল ছিলেন। বর নিজে নিজে ঠিকমতো দাঁড়াতেও পারছিলেন না।

বরের এই অবস্থা দেখে মুসকান শেখ নামে ওই কনে এখানে বিয়ে করবেন না বলে জানিয়ে দেন। মুসকারের বাবা-মাও মেয়ের সিদ্ধান্তে সায় দিয়ে বরযাত্রীকে ফিরে যেতে বলেন। স্থানীয় পুলিশও এ ব্যাপারে কনের পরিবারকে সাহায্য করে।

বিয়ের আসরে বিয়ে ভাঙার ঘটনা বিরল নয়। কয়েকদিন আগে বিয়ের আসরে বরপক্ষের ছোড়া গুলিতে কনের চাচা আহত হওয়ায় বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন কনে।

মদ খেয়ে মাতাল অবস্থায় বিয়ে আসরে এসেছিলেন এক যুবক। তিনি এতোটাই মাতাল ছিলেন যে ঠিকমতো দাঁড়াতেই পারছিলেন না। শুধু হবু বরই নন, বরযাত্রীর অনেকেই ছিলেন মাতাল।

হবু শ্বশুরবাড়ির সবার এই দশা দেখে ওই তরুণী বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজগড় জেলার সুথালিয়ায় ৭ নভেম্বর এই ঘটনা ঘটে বলে দেশটির একটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কনের বাড়িতে বরযাত্রী আসার পর দেখা পর দেখা যায়, বরপক্ষের অনেকে, এমনকি বর নিজেও মাতাল ছিলেন। বর নিজে নিজে ঠিকমতো দাঁড়াতেও পারছিলেন না।

বরের এই অবস্থা দেখে মুসকান শেখ নামে ওই কনে এখানে বিয়ে করবেন না বলে জানিয়ে দেন। মুসকারের বাবা-মাও মেয়ের সিদ্ধান্তে সায় দিয়ে বরযাত্রীকে ফিরে যেতে বলেন। স্থানীয় পুলিশও এ ব্যাপারে কনের পরিবারকে সাহায্য করে।

বিয়ের আসরে বিয়ে ভাঙার ঘটনা বিরল নয়। কয়েকদিন আগে বিয়ের আসরে বরপক্ষের ছোড়া গুলিতে কনের চাচা আহত হওয়ায় বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন কনে।

মাতাল বরযাত্রী নিয়ে বিয়ের আসরে মদ্যপ বর, অতঃপর

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২১ নভেম্বর, ২০২১ | ১১:৩৬ 64 ভিউ
মদ খেয়ে মাতাল অবস্থায় বিয়ে আসরে এসেছিলেন এক যুবক। তিনি এতোটাই মাতাল ছিলেন যে ঠিকমতো দাঁড়াতেই পারছিলেন না। শুধু হবু বরই নন, বরযাত্রীর অনেকেই ছিলেন মাতাল। হবু শ্বশুরবাড়ির সবার এই দশা দেখে ওই তরুণী বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন। ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজগড় জেলার সুথালিয়ায় ৭ নভেম্বর এই ঘটনা ঘটে বলে দেশটির একটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কনের বাড়িতে বরযাত্রী আসার পর দেখা পর দেখা যায়, বরপক্ষের অনেকে, এমনকি বর নিজেও মাতাল ছিলেন। বর নিজে নিজে ঠিকমতো দাঁড়াতেও পারছিলেন না। বরের এই অবস্থা দেখে মুসকান শেখ নামে ওই কনে এখানে বিয়ে করবেন না বলে জানিয়ে দেন। মুসকারের বাবা-মাও মেয়ের সিদ্ধান্তে সায় দিয়ে বরযাত্রীকে ফিরে যেতে বলেন। স্থানীয় পুলিশও এ ব্যাপারে কনের পরিবারকে সাহায্য করে। বিয়ের আসরে বিয়ে ভাঙার ঘটনা বিরল নয়। কয়েকদিন আগে বিয়ের আসরে বরপক্ষের ছোড়া গুলিতে কনের চাচা আহত হওয়ায় বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন কনে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: