মুরাদের অবস্থান রহস্যে ঘেরা – ডোনেট বাংলাদেশ

মুরাদের অবস্থান রহস্যে ঘেরা

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১২ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৮:২২ 188 ভিউ
বিতর্কিত কর্মকা- ও নারীবিদ্বেষী বক্তব্য দিয়ে প্রতিমন্ত্রীর পদ হারানো ডাঃ মুরাদ হাসানের কোন হদিস মিলছে না। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নাটকীয়ভাবে এমিরেটসের একটি ফ্লাইটে ঢাকা ত্যাগের পর কানাডায় অবতরণের কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। ঢাকায়ও সরকারের কোন দায়িত্বশীল মহল মুরাদ হাসানের সর্বশেষ অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত করতে পারছে না। চূড়ান্ত গন্তব্য কানাডার টরন্টো হলেও তাকে সেখানে অবতরণ করার বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি সেখানকার দূতাবাস কর্তৃপক্ষ। আবার কানাডা থেকে দুবাই কিংবা দেশে ফেরারও কোন তথ্য নেই কারোর কাছে। এ বিষয়ে শনিবার একটি বেসরকারী টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাতকারে হাইকমিশনার বেনোই প্রেফনটেইন জানিয়েছেন, তাকে কানাডায় প্রবেশাধিকার দেয়া না দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত একমাত্র ইমিগ্রেশন ও বর্ডার

এজেন্সির। একটি সূত্র জানায়, টিকা সংক্রান্ত কাগজপত্র দেখাতে না পারায় মুরাদকে ইমিগ্রেশন থেকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। এমনটি হয়ে থাকলে এ্যামিরেটসের ফ্লাইট সিডিউল অনুযায়ী আজ রবিবার সকালে দেশে ফিরতে পারেন তিনি। এদিকে শনিবার দিনভর দেশে উৎসুক মানুষের প্রশ্ন ছিলÑ তাহলে মুরাদ কোথায়? মূলত এটিই এখন- টক অব দ্য কান্ট্রি। হাইকমিশনার জানান, এ বিষয়ে তার সঙ্গে কোন যোগাযোগ করা হয়নি। তবে করোনাকালীন ভ্রমণের বিষয়ে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আছে, যা দেশটিতে ভ্যালিড (বৈধ) ভিসা থাকা সব ভ্রমণকারীর জন্য প্রযোজ্য। তবে কোন ব্যক্তির ভিসা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে কেবল ইমিগ্রেশন ও বর্ডার এজেন্সি। সর্বশেষ শনিবার রাতে জানা যায়, এখনও কানাডায় প্রবেশ করার চেষ্টা করছেন মুরাদ হাসান। করোনা

ইস্যুতে কানাডা ভ্রমণের যথাযথ অনুমোদনের কাগজপত্র না থাকায় দেশটিতে এখনও প্রবেশাধিকার পাননি তিনি। এ প্রসঙ্গে কানাডায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত খলিলুর রহমান গণমাধ্যমকে সুস্পষ্ট বলেছেন, তিনি এদেশে এসেছেন কিনা, ঢুকতে পেরেছেন কিনাÑ ঢুকতে পারলে কোথায় আছেনÑ এ বিষয়ে আমাদের কাছে কোন তথ্য নেই। আমরাও মুরাদ হাসানের কানাডা সফর সম্পর্কে বিভিন্ন খবর পত্রিকায় দেখেছি। একটি পত্রিকা বলেছে, তাকে ইমিগ্রেশনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আবার আরেকটি পত্রিকা বলেছে, তিনি মন্ট্রিলে আছেন। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার তার সফর সম্পর্কে দূতাবাসকে কিছু জানায়নি। এর আগে তিনি প্রতিমন্ত্রী হিসেবে কানাডা সফরকালে আমাদের অবহিত করা হয়েছিল। মুরাদ হাসান এখন সংসদ সদস্য। অনেক সময় সংসদ সদস্যরা কানাডা সফর করলে আমাদের জানান

বিভিন্ন ধরনের প্রটোকল সুবিধার জন্য। কিন্তু মুরাদ হাসান তার সফর সম্পর্কে আমাদের কিছু জানাননি। কানাডার ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কোন তথ্য দেয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, কানাডার ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের ভাল যোগাযোগ আছে। অন্য কোন কিছু ঘটে থাকলে তা আগে আমাদের অবশ্যই জানানো হতো। কানাডায় বাংলাদেশী কেউ বিপদে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ আমাদের কোন যোগাযোগ করেনি। জানা যায়, একজন সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি কূটনৈতিক পাসপোর্ট ব্যবহার করছেন। যেটা দিয়ে গত সেপ্টেম্বরে তিনি ব্যক্তিগত সফরে কানাডায় ভ্রমণ করেছেন। তখন তাকে দূতাবাস থেকে প্রটোকল দেয়া হয়েছিল। কিন্তু এবার রহস্যময় নিরুদ্দেশ হয়ে কোথায় গেলেন? এমন ধুয়াসার

মাঝে স্বভাবতই প্রশ্ন- তা হলে কোথায় গেলেন মুরাদ? তিনি কি কানাডা থেকে দুবাই ফিরতে বাধ্য হয়েছেন? নাকি দুবাই হয়ে ফের ঢাকায় ফিরেছেন চুপিসারে? এদিকে কানাডার স্থানীয় বাংলা পত্রিকা নতুন দেশের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কানাডায় বসবাসরত মুরাদের ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তবে কানাডার সরকারী সূত্র থেকে এই বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। কানাডা বর্ডার সার্ভিসের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তাৎক্ষণিকভাবে তারা কোন মন্তব্য করেননি। ডাঃ মুরাদ আমিরাতের একটি ফ্লাইটে স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুর ১টা ৩১ মিনিটে টরন্টোর পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন। এ সময় কানাডা ইমিগ্রেশন এবং বর্ডার সার্ভিস এজেন্সির কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যান। দীর্ঘ সময় ধরে

তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। বিমানবন্দরের বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, জিজ্ঞাসাবাদে মুরাদের কাছ থেকে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। এ সময় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা তাকে জানান, বিপুল সংখ্যক কানাডিয়ান তার প্রবেশের বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে সরকারের কাছে আবেদন করেছে। পরে তাকে মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশের বিমানে তুলে দেয়া হয় বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঢাকার ইমিগ্রেশনও মুরাদের কানাডায় অবতরণ ও দেশে ফেরার বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি। জানতে চাইলে এমিরেটসের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার ৮টার দিকে কানাডার টরন্টোর উদ্দেশে বাসা থেকে বের হন মুরাদ হাসান। রাত ৯টায় তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। রাত ১১টা ২০ মিনিটের দিকে এমিরেটসের

ফ্লাইটে যাওয়ার কথা থাকলেও ফ্লাইটটি ছেড়ে যায় রাত সোয়া ১টার দিকে। সিডিউল মোতাবেক সেই ফ্লাইট দুবাইয়ে কয়েক ঘণ্টা স্টপওভার দিয়ে শুক্রবার সকালে মন্ট্রিলের উদ্দেশে রওনা হয়ে বিকেলের দিকে সেটা সেখানে পৌঁছানোর কথা। কিন্তু মন্ট্রিলে বিমানবন্দরে অবতরণের পর তাকে কানাডায় প্রবেশের সুযোগ দেয়া হয়নি। তাহলে তাকে ডিপোর্ট করা হয়েছে নাকিÑ এমন প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী একজন যাত্রীকে ডিপোর্ট করার নিয়ম-কানুন সম্পর্কে এভিয়েশন বিশেষজ্ঞ আশীষ রায় চৌধুরি বলেন, কানাডা উদার গণতান্ত্রিক দেশ। সাধারণত ভিসা থাকলে কাউকে ডিপোর্ট করে না। তবে যদি নারী বিদ্বেষী ও লিঙ্গ বৈষম্যের ওপর আগ্রাসী মনোভাব বা অন্য কোন কারণে বিতর্কের সৃষ্টিকারী বিদেশী নাগরিকদের বেলায় কিছুটা রিজার্ভেশন

দিতে পারে। এখন মুরাদের বেলায় কি ঘটেছে সরকারী-বেসরকারী কোন মহল কেউই কিছু বলছে না। তিনি বলেন, যদি ডিপোর্ট করে থাকে তাহলেও তাকে দেশে ফিরতে সময় লাগবে। যেমন বৃহস্পতিবার রাত গভীরে ঢাকা থেকে রওনা হয়ে সেই ফ্লাইট দুবাই হয়ে মন্ট্রিল কিংবা টরন্টো পৌঁছতে শুক্রবার বিকেল হয়ে যাবার কথা। তারপর বিমানবন্দরে তাকে যদি ইমিগ্রেশনে জেরার মুখে পড়তে হয় কিংবা ডিপোর্ট করা হয় তাহলেও আইএটিএ-এর রুলস মানতে হবে। সেক্ষেত্রে ওই যাত্রীর পাসপোর্ট নিয়ে নেবে এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ। আর যাত্রীকে তুলে নেবে শূন্য হাতে ফ্লাইটে। যেহেতু এমিরেটসের যাত্রী সেজন্য তাকে বহনকারী ওই ফ্লাইট দুবাই হয়ে মাদাার ডেস্টিনেশন ঢাকায় ফিরে আসবে। এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ তখন তার পাসপোর্ট ইমিগ্রেশনের কাছে তার সামনে হস্তান্তর করার পর তিনি দেশে প্রবেশ করবেন। তার পক্ষে দুবাইয়ে নেমে থেকে যাবার কোন রুলস নেই। আইএটিএ রুলস অনুযায়ী ডিপোর্টের ওই যাত্রীর পক্ষে দুই গন্তব্যের মাঝে কোন দেশে নামার সুযোগ নেই। কারণ তার পাসপোর্ট ভিসা ও টিকেটসহ সব ডকুমেন্টস থাকবে এয়ারলাইন্স ক্রুর কাছে যা তারা সরাসরি ঢাকায় নেমে ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করবে। মুরাদকে ডিপোর্ট করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ঢাকায় এমিরেটসের একটি সূত্র জানায়, দুবাই থেকে শনিবার রাত পর্যন্ত কোন ঢাকার কোন ফ্লাইটে মুরাদ হাসান নামের কোন যাত্রীর নাম নেই। যদি কানাডা থেকে সত্যি সত্যিই ডিপোর্ট হয়ে থাকেন তাহলেও স্বাভাবিক নিয়মে ফিরতে পারেন রবিবার।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
‘তুফান ঘটক’ আশরাফ সুপ্ত রাশিয়াকে ড্রোন দেওয়ার দাবি আবারও প্রত্যাখ্যান করল ইরান চার অঞ্চল অন্তর্ভুক্তির বিল রাশিয়ার পার্লামেন্টে অনুমোদন রাশিয়াকে ড্রোন দেওয়ার দাবি আবারও প্রত্যাখ্যান করল ইরান মোগল আমলে নির্মিত সাত গম্বুজ মসজিদ পরিবেশ সুরক্ষার দায়িত্ব সবার র‍্যাব সংস্কারের প্রশ্ন: কিছু কথা পরিশ্রমের সময় বুকে ব্যথা, কী করবেন? সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে সেতুর রেলিংয়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কা,নিহত ৩ সতর্কবার্তা ৬ বছর আগেই ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হবেন ‘রানঅফ’ ভোটে, এটি কেমন পদ্ধতি? রুশ সেনাদের স্থাপনার তালিকা যুক্তরাষ্ট্রকে দিতে চায় ইউক্রেন পারমাণবিক কেন্দ্রের প্রধানকে ছেড়ে দিয়েছে রাশিয়া নপির শাসনামলের ১০০ দিনের আমলনামা তুলে ধরলেন জয় একটাই দাবি এই সরকারকে বিদায় করতে হবে: অলি বাংলাদেশের গণতন্ত্র নিয়ে আপনাদের এত মাথাব্যথা কেন: ওবায়দুল কাদের সুইপারকে হোটেলে নাস্তা খেতে না দেওয়ায় মানববন্ধন ’৭১-এর গণহত্যার স্বীকৃতির দাবিতে কানাডায় সমাবেশ আবুধাবিতে নানা আয়োজনে চলছে শারদীয় দুর্গাপূজা ব্যবসার পরিবেশ সহজীকরণ: দুর্নীতি ও আমলাতান্ত্রিক জটিলতা দূর করা জরুরি