মেলা ‘ল’-তে লিচু – ডোনেট বাংলাদেশ

মেলা ‘ল’-তে লিচু

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৩ জুন, ২০২২ | ৬:১৪ 37 ভিউ
ঈশ্বরদীতে লিচুমেলার প্রবেশপথ সাজানো হয় লিচু ও বিভিন্ন ফলমূল দিয়ে -- ডোনেট বাংলাদেশ
মনোহর প্রবেশপথ। সবুজ পাতার ভাঁজে ভাঁজে টসটসে লিচু থোকা থোকা। গাছ ভাবলেই খেতে হবে ধোঁকা। চোখ ফেরানো যায় না। শুধু কি লিচুর টেউ! ফটক দিয়ে ঢুকে পথের দু'ধারে রকমারি ফল আর সবজি সাজানো থরে থরে। লাউ, বেগুন, মিষ্টিকুমড়া, ফুলকপি, কাঁচামরিচ, শিম, বরবটি, করলা, চিচিঙ্গা, বাতাবিলেবু, চালকুমড়া, আলু, ধনেপাতা- কী নেই! আরও আছেন পটুয়াখালীর 'লেবু আনিছ', খুলনার ডুমুরিয়ার 'কচু লিটন', ময়মনসিংহের 'ভুট্টা রফিক', সাতক্ষীরার 'টমেটো সালাম', সঙ্গে পাবনার ঈশ্বরদীর 'পেঁপে বাদশা', 'কুল ময়েজ' আর 'লিচু কিতাব'। কৃষি খাতে রোশনি ছড়িয়ে মাথায় সোনার মুকুট পরা জাতীয়ভাবে আলোকিত চাষা তাঁরা। বিভিন্ন স্থান থেকে আসা এসব চাষি ফল, সবজি কিংবা ফসল উৎপাদনে সফলতার গল্পের নায়ক

বনে গিয়ে কৃষিপণ্যের সঙ্গে জুড়ে যায় তাঁদের নাম। সবাইকে পাওয়া গেল এক ছাতার নিচে পাবনার ঈশ্বরদীতে দেশের প্রথম লিচুমেলায়। গতকাল বৃহস্পতিবার ঈশ্বরদীর বাংলাদেশ সুগারক্রপ রিসার্চ ইনস্টিটিউট স্কুলমাঠে শুরু হয়েছে দু'দিনের এই লিচুমেলা। বিকেলে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক লিচুমেলার উদ্বোধন করেন। মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পাবনা-৪ আসনের এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস। ঈশ্বরদী উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় এই মেলার আয়োজক বাংলাদেশ কৃষক উন্নয়ন সোসাইটি। মেলার প্রথম দিন উদ্বোধনের কারণে প্রদর্শিত লিচু বিক্রির ব্যবস্থা ছিল না। মেলার লিচু :দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মেলায় হাজির অন্তত সাড়ে তিন হাজার চাষি। বোম্বাই লিচু, চায়না থ্রি, চায়না দুই, মোজফফরি লিচু, বেদানা লিচু, জিরা লিচু, কলকাতা লিচু, সিডলেস

লিচু, কাঁঠালি লিচু, গোলাপি লিচুসহ দেশি হরেক জাতের লিচুর পসরা সাজিয়ে বসেছেন চাষিরা। লিচুর বাইরে মেলায় ৪০টি স্টলে প্রদর্শিত হচ্ছে কম্পোস্ট সার, কৃষিযন্ত্র, গবাদিপশু ও বিভিন্ন কৃষিপণ্যও। দেশের বিভিন্ন জেলায় উৎপাদিত কৃষিপণ্যের যা কিছু ব্যতিক্রম, তার কিছুটা উঠে এসেছে এ মেলায়। দর্শনার্থীরা খুশি :কুষ্টিয়ার মিরপুর থেকে মেলায় আসা হাফিজুর রহমান বললেন, 'মেলায় এসে লিচুসহ বিভিন্ন ফলমূলের সঙ্গে পরিচিত হতে পেরে ভালো লাগছে।' বরিশালের বানারীপাড়ার জাহিদুর রহমান বলেন, 'আমার ধারণায় ছিল না, লিচু নিয়ে এমন বিশাল মেলা হতে পারে!' ঠাকুরগাঁওয়ের মেহেদী আহসান বলেন, 'এই লিচুমেলায় এসে নতুন এক অভিজ্ঞতা নিলাম।' চাষিদের ১৫ দাবি :প্রতিবছর জাতীয়ভাবে লিচুমেলার আয়োজন, মানসম্মত লিচু ও মধু উৎপাদনে গবেষণাগার

স্থাপনসহ ১৫ দফা দাবি তুলতেই ঈশ্বরদীতে চাষিদের এই মিলনমেলা। তাঁদের অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- লিচু প্রসেসিং কেন্দ্র স্থাপন, প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারি তহবিল থেকে প্রণোদনা দেওয়া, বিভিন্ন টোল প্লাজায় কৃষিপণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে ট্রাক পারাপারে বিশেষ সুবিধা দেওয়া, সারাদেশের কৃষকদের ডাটাবেস তৈরির মাধ্যমে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে একত্রীভূত করা, সার ও কীটনাশকের মান নির্ণয় করে কৃষকের নাগালের মধ্যে ল্যাব তৈরির দাবি উল্লেখযোগ্য। চাষিরা এই মেলায় কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাককে কাছে পেয়ে তাঁদের দুর্দশার কথা তুলে ধরেন। নষ্ট লিচু দিয়ে হতে পারে অ্যালকোহলিক পণ্য :প্রতিবছর উৎপাদনের ৩০ শতাংশ লিচু নষ্ট হয় গাছতলায়। অপচয় হওয়া এই লিচু সংরক্ষণ করে কাজে লাগানোরও আছে উপায়। গবেষণায় দেখা গেছে,

লিচুতে মেলে প্রচুর পরিমাণে অ্যালকোহল। গাছ থেকে ঝরে পড়া লিচু প্রক্রিয়াজাত করার মাধ্যমে অ্যালকোহলিক পণ্য তৈরি করা সম্ভব। এতে লিচু থেকে বৈদেশিক মুদ্রা আয়েরও সুযোগ আছে। শুধু সংরক্ষণাগার না থাকায় বাংলাদেশে লিচু উৎপাদন, বিপণন ও সংরক্ষণের মাধ্যমে প্রচুর সম্ভাবনা থাকার পরও তা কাজে লাগানো যাচ্ছে না। এভাবেই লিচু নিয়ে ভাবনার কথা সমকালকে জানাচ্ছিলেন লিচু উৎপাদন করে সরকারিভাবে স্বর্ণপদক খেতাব পাওয়া চাষি ঈশ্বরদীর আবদুল জলিল কিতাব মণ্ডল ওরফে 'লিচু কিতাব'। চাষিদের কথা :বেলী বেগমও মজে আছেন লিচু চাষে। তিনি বলছিলেন, 'দেশে ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট, ডাল গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে। অথচ সম্ভাবনাময় লিচুর জন্য নেই সংরক্ষণাগার, নেই গবেষণাগার। আমরা চাই, নতুন আরও লিচুর জাত

উদ্ভাবন হোক। এতে কৃষক যেমন লাভবান হবেন, তেমনি দেশ সমৃদ্ধের পথে হাঁটবে আরও।' লিচুমেলায় রংপুর থেকে আসা চাষি কৃষ্ণ বৈদ্যনাথ বর্মণ বলেন, 'মাথার ঘাম পায়ে ফেলে চাষিদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতের ক্ষেত্রে যে বৈষম্যের বেড়াজাল তৈরি হয়ে আছে, তা থেকে বের হতে চাই আমরা।' কারা কী বলছেন :পাবনা-৪ আসনের এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, ঈশ্বরদীতে একটি কৃষিপণ্য সংরক্ষণাগার স্থাপনের দাবি দীর্ঘদিনের। দেশের এক-দশমাংশ সবজি উৎপাদন হয় ঈশ্বরদীতে; এখানকার লিচুর রয়েছে আলাদা সুনাম। প্রতিবছর এখানে ৫০০ কোটি টাকার লিচু কেনাবেচা হয়। ফলে ঈশ্বরদীতে কৃষিপণ্য সংরক্ষণাগার ও হিমাগার স্থাপন করা হলে এ থেকে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব আয় হবে। ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র ইছাহক আলী বলেন, সারাদেশের চাষিদের অংশগ্রহণে

ঈশ্বরদীতে এ ধরনের একটি মেলার আয়োজন অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
টেক্সাসে লরি থেকে ৪৬ জনের মরদেহ উদ্ধার ফিলিপাইনে নোবেল জয়ী সাংবাদিক মারিয়া রেসার নিউজ সাইট বন্ধের নির্দেশ ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন বহুদূর বন্যা : বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসে ফের শঙ্কা তবু থামছে না দামের ঘোড়া সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডের ন্যাটোর সদস্যপদ পেতে সমর্থন দেবে তুরস্ক ক্ষোভে ফুঁসছে সারাদেশ শিক্ষক হেনস্তা ও হত্যা আইএমএফ থেকে ঋণ নিতে চাচ্ছে সরকার বুস্টার ডোজে গতি নেই সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী জাতিসংঘের মহাসাগর সম্মেলনে বাংলাদেশ করোনার সামাজিক সংক্রমণের শঙ্কা পুতিনকে জিততে দেবে না জি-৭ রাশিয়ার হামলায় সেভেরোদনেৎস্কের পর এবার পতনের মুখে লিসিচানস্ক সেন্সরে যাচ্ছে ‘পদ্মার বুকে স্বপ্নের সেতু’ ‘কীর্তিনাশার বুকে অমর কীর্তি’ সিলেটে বন্যার্তদের পাশে বিজিবি সদস্যরা স্বামীকে ছক্কা মারলেন পাকিস্তানের তারকা চরমপন্থা ঠেকাতে বাংলাদেশে স্থানীয় বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দিয়েছে ফেসবুক যেসব কারণে পেপটিক আলসার হয়, চিকিৎসা কলারোয়া পৌর প্রেসক্লাবের কমিটি গঠনঃ সভাপতি ইমরান, সম্পাদক জুলফিকার নির্বাচিত রাণীশংকৈলে​​​​​​​ মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত