রাজশাহীতে ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিদ্যালয়ের গাছ কাটলেন সভাপতি - ডোনেট বাংলাদেশ

রাজশাহী জেলার পবার হরিপুর ইউনিয়নের চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি শহীদ আলীর বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে ফলজ আমগাছ কেটে ফেলেন তিনি। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে প্রায় ১৫ হাজার টাকা মূল্যে এ গাছটি কেটেছেন বলে জানা গেছে।

হরিপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডে চর-মাঝাড়দিয়ারে একমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বর্তমানে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক। দীর্ঘদিন আগে স্কুলের মাঠে তীব্র রোদ থেকে বিশ্রামের জন্য কয়েকটি আমগাছ রোপণ করা হয়। এরমধ্যে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই ১১ই জানুয়ারী বড় আমগাছটি কাটেন সভাপতি শহীদ আলী। তবে বিদ্যালয় চত্বর থেকে গাছ কাটাই এলাকাবাসী ও

শিক্ষার্থী অভিভাবকবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন বলেন, মঙ্গলবার স্কুল খোলার আগেই বড় আমগাছটি কাটা হয়। তবে সভাপতি এ বিষয়ে কাউকে কিছু না জানিয়েই গাছ কেটেছেন। বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

অভিযুক্ত বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও হরিপুর ইউপি’র মেম্বার হুমায়ুন কবীর তার বিরুদ্বে আনীত অভিযোগ অস্বীকার বলেন, ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে এবং মাঠের উন্নয়নে গাছটি কাটা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষের অনুমতি লাগে কিনা তিনি জানেন না।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শহীদ আলীর দাবি, বিদ্যালয়ের উন্নয়নকাজের জন্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে অবহিত করেই গাছ কাটা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে সরকারিভাবে কোনো অনুমোদন নেওয়া হয়নি বলে জানান তিনি।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা

রফিকুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ের গাছ কাটার বিষয়ে কোনো ধরনের অনুমতি দেওয়া হয়নি। গাছ কাটার পর প্রধান শিক্ষক তাকে মৌখিকভাবে বিষয়টি অবহিত করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা বলেন, অনুমতি ছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাছ কাটার সুযোগ নেই।

রাজশাহী জেলার পবার হরিপুর ইউনিয়নের চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি শহীদ আলীর বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে ফলজ আমগাছ কেটে ফেলেন তিনি। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে প্রায় ১৫ হাজার টাকা মূল্যে এ গাছটি কেটেছেন বলে জানা গেছে।

হরিপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডে চর-মাঝাড়দিয়ারে একমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বর্তমানে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক। দীর্ঘদিন আগে স্কুলের মাঠে তীব্র রোদ থেকে বিশ্রামের জন্য কয়েকটি আমগাছ রোপণ করা হয়। এরমধ্যে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই ১১ই জানুয়ারী বড় আমগাছটি কাটেন সভাপতি শহীদ আলী। তবে বিদ্যালয় চত্বর থেকে গাছ কাটাই এলাকাবাসী ও

শিক্ষার্থী অভিভাবকবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন বলেন, মঙ্গলবার স্কুল খোলার আগেই বড় আমগাছটি কাটা হয়। তবে সভাপতি এ বিষয়ে কাউকে কিছু না জানিয়েই গাছ কেটেছেন। বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

অভিযুক্ত বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও হরিপুর ইউপি’র মেম্বার হুমায়ুন কবীর তার বিরুদ্বে আনীত অভিযোগ অস্বীকার বলেন, ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে এবং মাঠের উন্নয়নে গাছটি কাটা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষের অনুমতি লাগে কিনা তিনি জানেন না।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শহীদ আলীর দাবি, বিদ্যালয়ের উন্নয়নকাজের জন্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে অবহিত করেই গাছ কাটা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে সরকারিভাবে কোনো অনুমোদন নেওয়া হয়নি বলে জানান তিনি।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা

রফিকুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ের গাছ কাটার বিষয়ে কোনো ধরনের অনুমতি দেওয়া হয়নি। গাছ কাটার পর প্রধান শিক্ষক তাকে মৌখিকভাবে বিষয়টি অবহিত করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা বলেন, অনুমতি ছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাছ কাটার সুযোগ নেই।

রাজশাহীতে ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিদ্যালয়ের গাছ কাটলেন সভাপতি

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১২ জানুয়ারি, ২০২২ | ১০:৫৬ 36 ভিউ
রাজশাহী জেলার পবার হরিপুর ইউনিয়নের চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি শহীদ আলীর বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে ফলজ আমগাছ কেটে ফেলেন তিনি। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে প্রায় ১৫ হাজার টাকা মূল্যে এ গাছটি কেটেছেন বলে জানা গেছে। হরিপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডে চর-মাঝাড়দিয়ারে একমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চর-নবীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বর্তমানে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক। দীর্ঘদিন আগে স্কুলের মাঠে তীব্র রোদ থেকে বিশ্রামের জন্য কয়েকটি আমগাছ রোপণ করা হয়। এরমধ্যে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই ১১ই জানুয়ারী বড় আমগাছটি কাটেন সভাপতি শহীদ আলী। তবে বিদ্যালয় চত্বর থেকে গাছ কাটাই এলাকাবাসী ও

শিক্ষার্থী অভিভাবকবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন বলেন, মঙ্গলবার স্কুল খোলার আগেই বড় আমগাছটি কাটা হয়। তবে সভাপতি এ বিষয়ে কাউকে কিছু না জানিয়েই গাছ কেটেছেন। বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। অভিযুক্ত বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও হরিপুর ইউপি’র মেম্বার হুমায়ুন কবীর তার বিরুদ্বে আনীত অভিযোগ অস্বীকার বলেন, ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে এবং মাঠের উন্নয়নে গাছটি কাটা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষের অনুমতি লাগে কিনা তিনি জানেন না। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শহীদ আলীর দাবি, বিদ্যালয়ের উন্নয়নকাজের জন্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে অবহিত করেই গাছ কাটা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে সরকারিভাবে কোনো অনুমোদন নেওয়া হয়নি বলে জানান তিনি। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা

রফিকুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ের গাছ কাটার বিষয়ে কোনো ধরনের অনুমতি দেওয়া হয়নি। গাছ কাটার পর প্রধান শিক্ষক তাকে মৌখিকভাবে বিষয়টি অবহিত করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা বলেন, অনুমতি ছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাছ কাটার সুযোগ নেই।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
এবার প্ল্যাকার্ড হাতে আন্দোলনে শাবি শিক্ষকরা আগামী ১৫ দিন তেলের দাম অপরিবর্তিত থাকবে: বাণিজ্যমন্ত্রী কাল থেকে উপজেলায় যাচ্ছে ওএমএসের চাল-আটা টেনিসকে বিদায় জানাচ্ছেন সানিয়া মির্জা বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী শন টেইট দল বহিষ্কার করলেও কর্মী হিসেবে কাজ করে যাব: তৈমুর বিজেপিতে যোগ দিয়ে আলোচনায় অপর্ণা ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য সিদ্ধিরগঞ্জে সেনাসদস্য হত্যায় ৩ ছিনতাইকারী গ্রেফতার ডাব পাড়া নিয়ে মান্নানকে পিটিয়ে হত্যায় বাবা-ছেলের যাবজ্জীবন তালেবানকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রত্যাশা পূরণ করতে হবে: চীন দোষ থাকলে সরকার যে সিদ্ধান্ত নেবে, তাই মেনে নেব: উপাচার্য মধুখালীতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক মধুখালীতে কোভিড পরবর্তী করনীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ রাজশাহীতে অহরহ ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ ডুয়ানি’র এডহক কমিটি ঘোষণা CU Chhatra League clash,wounded 5 leader একদিনে আরও ৩০ লাখ করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ৮ হাজার ভারতীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজে বিস্ফোরণ, ৩ সেনা নিহত রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ