রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার এএসআই শাহিন বদলির আদেশ পেয়ে সাংবাদিককে ফোন


অথর
এনায়েত উল্লাহ জেলা সংবাদদাতা   রাজশাহী
প্রকাশিত :১৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯:০৫ অপরাহ্ণ | পঠিত : 117 বার
রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার এএসআই  শাহিন বদলির আদেশ পেয়ে সাংবাদিককে ফোন

রাজশাহীর দুর্গাপুর থানা পুলিশের এএসআই শাহিন কে চট্রোগ্রামে বদলি করেছে প্রশাসন। তার নতুন কর্মস্থলে যোগদান করার পূর্বেই বুধবার সন্ধ্যায় সাংবাদিক কে মুঠো ফোনে ফোন করে প্রতিহিংসাত্বমূলক কথা বলেন এএসআই শাহিন। জানাগেছে এএসআই শাহিন দুর্গাপুর থানায় যোগদান করার পর থেকেই বিভিন্ন অনিয়মে জড়িয়ে যানদদধ। উপজেলার অবৈধ পুকুর খনন থেকে শুরু করে থানায় নিজের দাপট ক্ষমতা নিয়েই তিনি বেশিরভাগ সময় ব্যস্ত থাকতেন। অভিযোগ রয়েছে শাহিন দুর্গাপুর উপজেলার একাধিক ব্যক্তিকে পুলিশি ক্ষমতার ভয়ভিতি দেখিয়ে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিতেন। এমন কি? শাহিনের সাথে কথা না বলে কোন পুকুর খনন কারি কোন ভাবেই তার পুকুর খনন করতে পারতেন না। যদি কেউ কোন ভাবে শুরু

করতেন তাহলে তার ভেকু মেশিনের চাবি চলেযেত শাহিনের হাতে। দুর্গাপুর উপজেলার নারায়ন পুরের একাধিক ব্যক্তি শাহিনের নামে অভিযোগ করে বলেন, শাহিন নগদে বিশ্বাসী। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি সুত্র বলেন, আমরা পুলিশ হয়রানির ভয়ে বিষয় গুলো থানার ওসিকে বলিনি। সুত্রটি বলেন শাহিনের শাস্তি স্বরুপ বদলির খবর শুনে আমাদের এলাকায় কয়েক মন মিস্টি বিতরন করা হয়েছে। মুঠো ফোনের মাধ্যমে শাহিনের সাথে অবৈধ লেনদেন হয়েছে এমন তথ্য রয়েছে গনমাধ্যম কর্মীদের নিকট। এত ঘটনার নায়ক হয়ে কিভাবে দুর্গাপুর থানায় এত দিন চাকুরি করছিলেন তিনি সেই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সুশীল সমাজের নিকট। দুর্গাপুর থানার একটি সুত্র বলছে শাস্তি মুলক শাহিনের চট্রগ্রাম রেঞ্জে বদলি

হলেও শাহিন বলছেন আমার খুটির জোরেই আমি বদলি নিয়েছি। থানার সুত্রটি আরো বলেন তিনি থানায় চাকরি করলেও তার ভাবছিল ভিন্ন, নিজের খেয়াল খুশিমত কাজ করতো। পুলিশের সিনিয়র অফিসারদের নামেও বদনাম করার সভাব রয়েছে এই শাহিনের। পূর্বে এমন ঘটনার কারনে পুলিশের খাতায় ভিন্ন ভাবে নাম ও রয়েছে তার। বেপরোয়া হওয়ার কারনে শাস্তি মুলক পদক্ষেপ নেওয়ার ঘটনাও রয়েছে শাহিনের চাকুরি জীবনে। তিনি বলেন আসলে পুলিশে চাকরি করতে এসে এমন বেপরোয়া হওয়া ব্যক্তিদের চট্রগ্রামে বদলি নয় তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করে চাকুরি থেকে বিদায় করে দেওয়া উচিত। উল্লেখ্য যে ইতি পূর্বে এএসআই শাহিনের অনিয়মের বিষয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়েছিল।







No Comments

আরও পড়ুন