শালিখায় বীরমুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্চিত করায় যথাযত বিচার দাবী – ডোনেট বাংলাদেশ

শালিখায় বীরমুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্চিত করায় যথাযত বিচার দাবী

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৪ আগস্ট, ২০২২ | ৮:৫০ 19 ভিউ
মাগুরার শালিখায় বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসুলকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসুল শালিখা উপজেলার শতখালী ইউনিয়নের বয়রা গ্রামের মৃত রেজাউল মোল্যার ছেলে। অভিযোগে বলা হয়েছে, বসত বাড়ীর সীমানা বিরোধ থাকায় গত ২৯ জুলাই ২২ ইং তারিখ সকাল ১১টায় সার্ভেয়ার দ্বারা সীমানা নির্ধারিত হওয়ার পর সীমানা পিলার বসানে কে কেন্দ্র করে বাগ বিতন্ডতা সৃষ্টি হয়। ঐ সময় প্রতিবেশি আব্দুল খালেক ও তার ভাগ্নে সাগর আলী মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধা সম্পর্কে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। আমি এর প্রতিবাদ করলে তারা দুজনই আমার উপর চড়াও হয় এবং আমাকে গলা ধাক্কা দিয়ে মাঠিতে ফেলে দিয়ে লাথি-গুতা মারা শুরু করে। পরে

প্রান বাঁচানোর ভয়ে আমি সেখান থেকে পালিয়ে যায়। বর্তমানে আমি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। গতকাল বৃহস্পতিবার সরোজমিনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। ঐ ঘটনার প্রত্যক্ষদশী প্রতিবেশী রাজু আহম্মেদ জানান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসুল চাচাকে আমার সামনে সাগর, আব্দুল খালেক সহ কয়েকজন চড় থাপ্পর ও লাথি গুতা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয় এছাড়া অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। প্রতিবেশি রিনা খাতুন জানান আমাদের জমির কিছু অংশ আব্দুল খালেক মোল্যার বসত ভিটার মধ্যে চলে যাওয়ায় জমিটি সঠিক মাপের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলম রসুল চাচাকে জমি পরিমাপের স্থলে আসতে বলি তিনি সেখানে যাওয়া মাত্রই প্রতিবেশি আব্দুল খালেক সহ কয়েকজন লোজ তাকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করে এবং

মুক্তিযোদ্ধাদের নামে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এব্যাপারে শালিখা থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি বিশারুল ইসলাম জানান এ বিষয়ে একটা অভিযোগ পেয়েছি তদন্তপূর্বক দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর জানান, বিষয়টি অত্যন্ত গর্হিত আমরা এ বিষয়ে সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে যথার্য বিচার কামনা করছি। পাশাপাশি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কে নিয়ে এ ধরনের কার্যকলাপ অত্যন্ত হৃদয় বিদারক বলে জানান তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিফ-উল- হাসান জানান এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে বিষটি তদন্তের জন্য শালিখা থানা পুলিশ অবহিত করা হয়েছে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
অর্থ পাচার দুর্নীতি লুটপাটে বাড়ছে মূল্যস্ফীতি সারা দেশে ব্যাংকের শাখা পর্যায়ে ডলার লেনদেনের সুযোগ ব্রয়লার মুরগি ২শ টাকা কেজি পেঁয়াজের হাফ সেঞ্চুরি এক ট্রলারে ধরা পড়ল ৬০ মণ ইলিশ, ১৪ লাখে বিক্রি তিন সেকেন্ডেই পালটে দেয় মোবাইল ফোনের আইএমইআই নম্বর সন্তানকে বিক্রির জন্য বাজারে তুললেন মা! বিদেশি চাপে সরকার বিক্ষোভ সমাবেশে ঝামেলা করছে না: মির্জা ফখরুল রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন সোহেল তাজ চলমান সংকট মোকাবিলায় ৬ মাসের প্যাকেজ গ্রহণের প্রস্তাব জাসদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন করার চিন্তা বাংলাদেশের মানুষ সুখে আছে, বেহেশতে আছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী কৃষ্ণ সাগরে কমে গেছে রাশিয়ার বিমান বহরের ক্ষমতা সরকার হটাতে সব দলকে এক হয়ে আন্দোলন করতে হবে: মান্না আ.লীগ মাঠে নামলে বিএনপি অলিগলিও খুঁজে পাবে না: কাদের ‘জন্মদিন পালনের কথা বলে হোটেলে এনে নারী চিকিৎসককে খুন’ নির্বাচিত হয়েও ফখরুলের সংসদে না যাওয়া নিয়ে যা বললেন কাদের ইরানে ড্রোন প্রশিক্ষণ নিচ্ছে রাশিয়া: যুক্তরাষ্ট্র নাটোরে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের বাঁধায় পন্ড মাগুরায় জেলা পরিষদের তৈরি স্থাপনা ভেঙ্গে দিল সড়ক বিভাগ শহরে আরও বাড়বে সংসদীয় আসন!