শিশুকে নিয়ে কানাডা চলে গেছেন ফারিয়া, হাইকোর্টে স্বামীর রিট - ডোনেট বাংলাদেশ

শিশু সন্তান নিয়ে আইনি লড়াইয়ে নেমেছেন রাজধানীর খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন নামে এক বাবা। সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন তিনি। কিন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে গত ৬ ডিসেম্বর প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়েছে, স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে গত ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন।

রিট দায়েরের পরই তিনি চলে গেছেন। ওই দিনই শিশুর বাবা সন্তানকে কানাডা থেকে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের প্রতি নির্দেশনা চেয়ে আরেকটি আবেদন করেছেন।

রাজধানীর মিরপুরের ডিওএইচএসের বাসিন্দা খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন ও মিরপুরের শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা ফারিয়া আলম। দুই জনই মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করেন। ২০১০ সালে তাদের বিয়ে হয়। ২০১৫ সালে এই দম্পতির সংসারে পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। সুখেই সংসার

চলছিল তাদের। গত জুন মাস থেকে সুখের সংসারে নেমে আসে অশান্তি। পারিবারিক অশান্তি থেকে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মধ্যে জুলাই মাসের প্রথম দিকে ফারিয়া আলম শিশু সন্তান নিয়ে স্বামীর বাসা থেকে চলে যান। স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগও বন্ধ করে দেন তিনি।

একপর্যায়ে পারিবারিক আদালতে শিশুর অভিভাবকত্ব নিয়ে একটি মামলা করেন শিশুর মা। উপায় না পেয়ে গত ১৮ নভেম্বর চার বছরের সন্তানকে আদালতে হাজির করার নির্দেশনা চেয়ে বাবা হাইকোর্টে রিট করেন। শিশুর বাবার পক্ষে রিট আবেদনটি দায়ের করেন ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ।

রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ গত ২২ নভেম্বর রুল জারি করেন। সন্তানসহ মাকে ৬

ডিসেম্বর হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ দেন। পরে গত ৬ ডিসেম্বর পল্ল­বী থানা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়, ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন।

আইনজীবী ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ জানান, হাইকোর্ট রিট মামলাটি স্ট্যান্ডওভার রেখেছেন। আদালত বলেছেন, যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা করা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানান। ফ্যামিলি কোর্ট থেকে অর্ডার নেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার বলেন, শিশু সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়েরের আগেই স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ কানাডা চলে গেছেন। আদালতে আমরা বলেছি- যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানাতে।

শিশু সন্তান নিয়ে আইনি লড়াইয়ে নেমেছেন রাজধানীর খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন নামে এক বাবা। সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন তিনি। কিন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে গত ৬ ডিসেম্বর প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়েছে, স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে গত ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন।

রিট দায়েরের পরই তিনি চলে গেছেন। ওই দিনই শিশুর বাবা সন্তানকে কানাডা থেকে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের প্রতি নির্দেশনা চেয়ে আরেকটি আবেদন করেছেন।

রাজধানীর মিরপুরের ডিওএইচএসের বাসিন্দা খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন ও মিরপুরের শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা ফারিয়া আলম। দুই জনই মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করেন। ২০১০ সালে তাদের বিয়ে হয়। ২০১৫ সালে এই দম্পতির সংসারে পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। সুখেই সংসার

চলছিল তাদের। গত জুন মাস থেকে সুখের সংসারে নেমে আসে অশান্তি। পারিবারিক অশান্তি থেকে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মধ্যে জুলাই মাসের প্রথম দিকে ফারিয়া আলম শিশু সন্তান নিয়ে স্বামীর বাসা থেকে চলে যান। স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগও বন্ধ করে দেন তিনি।

একপর্যায়ে পারিবারিক আদালতে শিশুর অভিভাবকত্ব নিয়ে একটি মামলা করেন শিশুর মা। উপায় না পেয়ে গত ১৮ নভেম্বর চার বছরের সন্তানকে আদালতে হাজির করার নির্দেশনা চেয়ে বাবা হাইকোর্টে রিট করেন। শিশুর বাবার পক্ষে রিট আবেদনটি দায়ের করেন ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ।

রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ গত ২২ নভেম্বর রুল জারি করেন। সন্তানসহ মাকে ৬

ডিসেম্বর হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ দেন। পরে গত ৬ ডিসেম্বর পল্ল­বী থানা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়, ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন।

আইনজীবী ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ জানান, হাইকোর্ট রিট মামলাটি স্ট্যান্ডওভার রেখেছেন। আদালত বলেছেন, যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা করা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানান। ফ্যামিলি কোর্ট থেকে অর্ডার নেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার বলেন, শিশু সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়েরের আগেই স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ কানাডা চলে গেছেন। আদালতে আমরা বলেছি- যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানাতে।

শিশুকে নিয়ে কানাডা চলে গেছেন ফারিয়া, হাইকোর্টে স্বামীর রিট

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১ | ১০:২৭ 49 ভিউ
শিশু সন্তান নিয়ে আইনি লড়াইয়ে নেমেছেন রাজধানীর খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন নামে এক বাবা। সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন তিনি। কিন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে গত ৬ ডিসেম্বর প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়েছে, স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে গত ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন। রিট দায়েরের পরই তিনি চলে গেছেন। ওই দিনই শিশুর বাবা সন্তানকে কানাডা থেকে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের প্রতি নির্দেশনা চেয়ে আরেকটি আবেদন করেছেন। রাজধানীর মিরপুরের ডিওএইচএসের বাসিন্দা খোন্দকার গাউছ মহিউদ্দিন ও মিরপুরের শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা ফারিয়া আলম। দুই জনই মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করেন। ২০১০ সালে তাদের বিয়ে হয়। ২০১৫ সালে এই দম্পতির সংসারে পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। সুখেই সংসার

চলছিল তাদের। গত জুন মাস থেকে সুখের সংসারে নেমে আসে অশান্তি। পারিবারিক অশান্তি থেকে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মধ্যে জুলাই মাসের প্রথম দিকে ফারিয়া আলম শিশু সন্তান নিয়ে স্বামীর বাসা থেকে চলে যান। স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগও বন্ধ করে দেন তিনি। একপর্যায়ে পারিবারিক আদালতে শিশুর অভিভাবকত্ব নিয়ে একটি মামলা করেন শিশুর মা। উপায় না পেয়ে গত ১৮ নভেম্বর চার বছরের সন্তানকে আদালতে হাজির করার নির্দেশনা চেয়ে বাবা হাইকোর্টে রিট করেন। শিশুর বাবার পক্ষে রিট আবেদনটি দায়ের করেন ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ। রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ গত ২২ নভেম্বর রুল জারি করেন। সন্তানসহ মাকে ৬

ডিসেম্বর হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ দেন। পরে গত ৬ ডিসেম্বর পল্ল­বী থানা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে জানানো হয়, ফারিয়া আলম সন্তানসহ টার্কিশ এয়ারওয়েজে ১৮ নভেম্বর কানাডা চলে গেছেন। আইনজীবী ব্যারিস্টার সজীব মাহমুদ জানান, হাইকোর্ট রিট মামলাটি স্ট্যান্ডওভার রেখেছেন। আদালত বলেছেন, যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা করা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানান। ফ্যামিলি কোর্ট থেকে অর্ডার নেন। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার বলেন, শিশু সন্তানকে পেতে হাইকোর্টে রিট দায়েরের আগেই স্ত্রী ফারিয়া আলম সন্তানসহ কানাডা চলে গেছেন। আদালতে আমরা বলেছি- যেহেতু ফ্যামিলি কোর্টে মামলা আছে, সেখানে গিয়ে এ বিষয়গুলো জানাতে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
এবার প্ল্যাকার্ড হাতে আন্দোলনে শাবি শিক্ষকরা আগামী ১৫ দিন তেলের দাম অপরিবর্তিত থাকবে: বাণিজ্যমন্ত্রী কাল থেকে উপজেলায় যাচ্ছে ওএমএসের চাল-আটা টেনিসকে বিদায় জানাচ্ছেন সানিয়া মির্জা বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী শন টেইট দল বহিষ্কার করলেও কর্মী হিসেবে কাজ করে যাব: তৈমুর বিজেপিতে যোগ দিয়ে আলোচনায় অপর্ণা ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য সিদ্ধিরগঞ্জে সেনাসদস্য হত্যায় ৩ ছিনতাইকারী গ্রেফতার ডাব পাড়া নিয়ে মান্নানকে পিটিয়ে হত্যায় বাবা-ছেলের যাবজ্জীবন তালেবানকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রত্যাশা পূরণ করতে হবে: চীন দোষ থাকলে সরকার যে সিদ্ধান্ত নেবে, তাই মেনে নেব: উপাচার্য মধুখালীতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক মধুখালীতে কোভিড পরবর্তী করনীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ রাজশাহীতে অহরহ ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ ডুয়ানি’র এডহক কমিটি ঘোষণা CU Chhatra League clash,wounded 5 leader একদিনে আরও ৩০ লাখ করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ৮ হাজার ভারতীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজে বিস্ফোরণ, ৩ সেনা নিহত রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ