সব বড় শহরে মেট্রোরেল হবে : একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী - ডোনেট বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ধাপে ধাপে দেশের সব বড় শহরগুলোতে মেট্রোরেল হবে। শুধু ঢাকাতেই নয়, বড় শহরগুলো এবং যেসব শহরে বিমানবন্দর রয়েছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এ বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিব।’

আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পরিকল্পনামন্ত্রী একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বিভিন্ন অনুশাসন তুলে ধরে সাংবাদিকদের আরও বলেন, ‘শুধু ঢাকায় নয়, আগামীতে চট্টগ্রামেও প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেল নির্মাণের কথা বলেছেন। আমরা জানি ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ

শুরু করেছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেব।’

এদিকে, আজকের একনেক সভায় ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আওতায় এয়ারপোর্ট রোডসহ বিভিন্ন সড়কের উন্নয়ন ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্প, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জন্য লজিস্টিকস্ ও ফ্লিট মেইনটেন্যান্স ফ্যাসিলিটিস গড়ে তোলা প্রকল্প, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীনে কুমারগাঁও-বাদাঘাট-এয়ারপোর্ট সড়ককে জাতীয় মহাসড়ক মানের চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ টেলিভিশনের কেন্দ্রীয় সম্প্রচার ব্যবস্থার

আধুনিকায়ন, ডিজিটাইজেশন ও অটোমেশন প্রকল্প এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের পার্ট বিষয়ক মৌলিক ও ফলিত গবেষণা প্রকল্প।

এছাড়াও অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীনে মোবাইল গেইম এ অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প ও বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল (মীলসরাই) প্রকল্প, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বরগুনা জেলায় পোল্ডার ৪৩১ ও ৪৪টি পুনর্বাসন ও ঝুঁকিপূর্ণ অংশ পায়রা নদীর ভাঙন থেকে প্রতিরক্ষা প্রকল্প এবং কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীর ভাঙনরোধ প্রকল্প রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ধাপে ধাপে দেশের সব বড় শহরগুলোতে মেট্রোরেল হবে। শুধু ঢাকাতেই নয়, বড় শহরগুলো এবং যেসব শহরে বিমানবন্দর রয়েছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এ বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিব।’

আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পরিকল্পনামন্ত্রী একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বিভিন্ন অনুশাসন তুলে ধরে সাংবাদিকদের আরও বলেন, ‘শুধু ঢাকায় নয়, আগামীতে চট্টগ্রামেও প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেল নির্মাণের কথা বলেছেন। আমরা জানি ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ

শুরু করেছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেব।’

এদিকে, আজকের একনেক সভায় ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আওতায় এয়ারপোর্ট রোডসহ বিভিন্ন সড়কের উন্নয়ন ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্প, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জন্য লজিস্টিকস্ ও ফ্লিট মেইনটেন্যান্স ফ্যাসিলিটিস গড়ে তোলা প্রকল্প, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীনে কুমারগাঁও-বাদাঘাট-এয়ারপোর্ট সড়ককে জাতীয় মহাসড়ক মানের চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ টেলিভিশনের কেন্দ্রীয় সম্প্রচার ব্যবস্থার

আধুনিকায়ন, ডিজিটাইজেশন ও অটোমেশন প্রকল্প এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের পার্ট বিষয়ক মৌলিক ও ফলিত গবেষণা প্রকল্প।

এছাড়াও অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীনে মোবাইল গেইম এ অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প ও বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল (মীলসরাই) প্রকল্প, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বরগুনা জেলায় পোল্ডার ৪৩১ ও ৪৪টি পুনর্বাসন ও ঝুঁকিপূর্ণ অংশ পায়রা নদীর ভাঙন থেকে প্রতিরক্ষা প্রকল্প এবং কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীর ভাঙনরোধ প্রকল্প রয়েছে।

সব বড় শহরে মেট্রোরেল হবে : একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৫ জানুয়ারি, ২০২২ | ১:২৪ 57 ভিউ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ধাপে ধাপে দেশের সব বড় শহরগুলোতে মেট্রোরেল হবে। শুধু ঢাকাতেই নয়, বড় শহরগুলো এবং যেসব শহরে বিমানবন্দর রয়েছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এ বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিব।’ আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। পরিকল্পনামন্ত্রী একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বিভিন্ন অনুশাসন তুলে ধরে সাংবাদিকদের আরও বলেন, ‘শুধু ঢাকায় নয়, আগামীতে চট্টগ্রামেও প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেল নির্মাণের কথা বলেছেন। আমরা জানি ইতোমধ্যে প্রাথমিক

কাজ শুরু করেছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেব।’ এদিকে, আজকের একনেক সভায় ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আওতায় এয়ারপোর্ট রোডসহ বিভিন্ন সড়কের উন্নয়ন ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্প, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জন্য লজিস্টিকস্ ও ফ্লিট মেইনটেন্যান্স ফ্যাসিলিটিস গড়ে তোলা প্রকল্প, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীনে কুমারগাঁও-বাদাঘাট-এয়ারপোর্ট সড়ককে জাতীয় মহাসড়ক মানের চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ টেলিভিশনের কেন্দ্রীয় সম্প্রচার

ব্যবস্থার আধুনিকায়ন, ডিজিটাইজেশন ও অটোমেশন প্রকল্প এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের পার্ট বিষয়ক মৌলিক ও ফলিত গবেষণা প্রকল্প। এছাড়াও অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীনে মোবাইল গেইম এ অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প ও বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল (মীলসরাই) প্রকল্প, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বরগুনা জেলায় পোল্ডার ৪৩১ ও ৪৪টি পুনর্বাসন ও ঝুঁকিপূর্ণ অংশ পায়রা নদীর ভাঙন থেকে প্রতিরক্ষা প্রকল্প এবং কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীর ভাঙনরোধ প্রকল্প রয়েছে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
এবার প্ল্যাকার্ড হাতে আন্দোলনে শাবি শিক্ষকরা আগামী ১৫ দিন তেলের দাম অপরিবর্তিত থাকবে: বাণিজ্যমন্ত্রী কাল থেকে উপজেলায় যাচ্ছে ওএমএসের চাল-আটা টেনিসকে বিদায় জানাচ্ছেন সানিয়া মির্জা বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী শন টেইট দল বহিষ্কার করলেও কর্মী হিসেবে কাজ করে যাব: তৈমুর বিজেপিতে যোগ দিয়ে আলোচনায় অপর্ণা ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য সিদ্ধিরগঞ্জে সেনাসদস্য হত্যায় ৩ ছিনতাইকারী গ্রেফতার ডাব পাড়া নিয়ে মান্নানকে পিটিয়ে হত্যায় বাবা-ছেলের যাবজ্জীবন তালেবানকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রত্যাশা পূরণ করতে হবে: চীন দোষ থাকলে সরকার যে সিদ্ধান্ত নেবে, তাই মেনে নেব: উপাচার্য মধুখালীতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক মধুখালীতে কোভিড পরবর্তী করনীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ রাজশাহীতে অহরহ ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ ডুয়ানি’র এডহক কমিটি ঘোষণা CU Chhatra League clash,wounded 5 leader একদিনে আরও ৩০ লাখ করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ৮ হাজার ভারতীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজে বিস্ফোরণ, ৩ সেনা নিহত রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ