সারের কৃত্রিম সংকট, ডিলারদের কারসাজি কঠোরভাবে রোধ করতে হবে – ডোনেট বাংলাদেশ

সারের কৃত্রিম সংকট, ডিলারদের কারসাজি কঠোরভাবে রোধ করতে হবে

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ৮:২৪ 20 ভিউ
সার নিয়ে নৈরাজ্যের অবসান হয়নি এখনো। কৃষকরা দোকানে গেলে ডিলাররা বলে দিচ্ছেন, সার নেই। অথচ স্থানীয় প্রশাসন বলছে, সারের কোনো সংকট নেই। সার গুদামে মজুত রয়েছে। কোথাও সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দাম দিলে সার পাওয়া যাচ্ছে। বোঝাই যাচ্ছে কৃত্রিমভাবে সারের সংকট সৃষ্টি করা হচ্ছে। বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। কারণ এখন চলছে আমনের মৌসুম। এ সময় কৃষকরা সার না পেলে উৎপাদন কমে যাওয়ার আশঙ্কা প্রবল। বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে খাদ্যনিরাপত্তার বিষয়টি অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আর এ সময়েই যদি কৃষকরা সার না পান, তাহলে তারা ধান উৎপাদনে নিরুৎসাহিত হবেন, এটাই স্বাভাবিক। আর এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে খাদ্যনিরাপত্তায়। কাজেই বিষয়টিতে জরুরি ভিত্তিতে

দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করি আমরা। বস্তুত সারের বাজারে অস্থিরতা শুরু হয় আগস্টের শুরুতে। ১ আগস্ট ইউরিয়া সারের দাম কেজিপ্রতি ৬ টাকা বাড়ানো হয়। এরপর ৫ আগস্ট বাড়ানো হয় জ্বালানি তেলের দাম। এর প্রতিক্রিয়ায় পরিবহণ ব্যয় বৃদ্ধির অজুহাতে খুচরা পর্যায়ে কৃষকদের কাছ থেকে সারের বাড়তি দাম নেওয়া হতে থাকে। শুধু তা-ই নয়, সার পরিবহণেও নানা অনিয়ম রয়েছে। লাখ লাখ টন সার মাঝপথে গায়েব করে দেওয়ার অভিযোগ আছে। এমনকি সারে ভেজাল মেশানোর মতো ঘটনাও ঘটেছে। এদিকে গ্যাস সংকট ও বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের কারণে জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অবস্থিত যমুনা সার কারখানায় ইউরিয়া উৎপাদন বন্ধ রয়েছে চার মাস ধরে। সেখানে সারের মজুত এখন শেষ পর্যায়ে। অন্যদিকে জ্বালানি

তেলের দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে জমিতে সেচ দেওয়া এবং ট্রাক্টর ব্যবহারের ক্ষেত্রেও। সব মিলে কৃষকরা পড়েছেন চরম বিপাকে। এ অবস্থায় সারের কৃত্রিম সংকট রোধে অসাধু ডিলারদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া জরুরি হয়ে পড়েছে। সেক্ষেত্রে নিয়মিত বাজার মনিটরিং চালিয়ে যেতে হবে। ভেঙে দিতে হবে পরিবহণ ঠিকাদারদের সিন্ডিকেট। বাজার নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে সরকারের কঠোর ভূমিকা না থাকার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। শুধু সার নয়, দেশে নানা অপকৌশলে ভোক্তাদের ঠকানো ছাড়াও কারসাজি ও যোগসাজশের মাধ্যমে বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটছে অহরহ। এবার আমনের মৌসুমে যারা কারসাজি করে সারের বাজার অস্থির করে তুলেছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে, এটাই কাম্য।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
চিরিরবন্দর দুই কেজি গাঁজা ও মাদক বিক্রির টাকাসহ গ্রেফতার দুই সম্প্রতি কুড়িয়ে পাওয়া সেই টাকার মালিক কে খোঁজে না পেয়ে অন্ধ হাফেজের চিকিৎসার জন‍্য দিলেন সৌরভ।। কলারোয়ায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে দায়িত্বপ্রাপ্তদের সাথে মতবিনিময় টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী গণসংযোগ চালাচ্ছেন আলহাজ্ব শেখ আমজাদ হোসেন ইউপি সদস্য ওমর ফারুককের হত্যা মামলায় এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড সমাবেশ শুরুর আগেই হাজারীবাগে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ মামলায় আসামি মৃত ব্যক্তি, ছাত্রলীগকর্মীও কুমিল্লা পিবিআই কার্যালয় থেকে অস্ত্র-গুলিসহ মালামাল চুরি ইউক্রেন ইস্যুতে ঢাকার সহযোগিতা চায় টোকিও এবার কানাডা যাচ্ছেন মুহিবুল্লাহর মাসহ ১৪ স্বজন পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে যাবে না আওয়ামী লীগ সংস্কৃতিজনদের ভালোবাসায় সিক্ত সাফজয়ী নারী ফুটবলাররা মাদক মামলায় পুলিশ-র‌্যাবের সদস্যও কারাগারে আছেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সচিবদের জন্য সতর্কবার্তা স্বাক্ষর যাঁর দায়িত্ব তাঁর তাল মেলাতে পারছে না দেশের পর্যটন খাত ওডেসায় সামরিক স্থাপনায় আঘাত হানল রাশিয়ার ড্রোন হাজারীবাগে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ রাশিয়ার স্কুলে ভয়াবহ হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ বিপিএলে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক কত, জানাল বিসিবি ‘বড় ভাইদের আশ্বাসে’ অনশন বাতিল করে ক্যাম্পাসে ফিরলেন ইডেনের সেই নেত্রীরা