গোয়ায় যেতে পারবেন না দরিদ্ররা - ডোনেট বাংলাদেশ

ধনী না হলে ইচ্ছে থাকলেও ভারতের দর্শনীয় পর্যটনকেন্দ্র গোয়ায় ভ্রমণ করতে পারবেন না পর্যটকেরা। গোয়ার পর্যটন মন্ত্রী মনোহর আজগাঁওকর জানিয়েছেন, গোয়া চায় সবচেয়ে ধনী পর্যটক, যারা বাসে খাবার রান্না করেন না।

মন্ত্রীর ভাষায়, যে পর্যটকেরা গোয়ার সৌন্দর্য নষ্ট করে বা মাদক সেবন করে তাদের গোয়ায় স্বাগত জানানো হবে না। এ ব্যাপারে আরো জোর দিয়ে তিনি বলেছেন, গোয়া পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত। তবে পর্যটকদের অবশ্যই গোয়ার সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। খবর এনডিটিভির।

ভারতের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র আরব উপকূলে অবস্থিত এ ছোট্ট ও সুন্দর রাজ্য গোয়া। অনেক সময় দেখা যায়, বাস ভাড়া করে ভ্রমণে বেরিয়ে পর্যটন এলাকায় খাবার রান্না করেন অনেকে। এ কারণে জনসম্মুখে রান্না করা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

মনোহর আজগাঁওকর বলেন, ‘আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা মাদক সেবন করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়া নষ্ট করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়ায় বাসে খাবার রান্না করে। আমরা ধনী পর্যটক চাই। আমরা এমন পর্যটক চাই যারা আমাদের সংস্কৃতি, ঐতিহ্যকে সম্মান করে। আমরা পর্যটকদের স্বাগত জানাই কিন্তু তাদের সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্যের সীমার মধ্যে গোয়া উপভোগ করা উচিত।’

পর্যটন মন্ত্রী জোর দিয়ে জানান, গোয়াতে মাদক সেবনকারীদের কোনো স্থান নেই। গোয়া মাদকের বিরুদ্ধে, সরকার এর বিরুদ্ধে, তিনি মাদকের বিরুদ্ধে এবং মুখ্যমন্ত্রীও এর বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পর্যটকদের জন্য গোয়ার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে। এমনকি চার্টার্ড ফ্লাইট পুনরায় চালু করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে

ধনী না হলে ইচ্ছে থাকলেও ভারতের দর্শনীয় পর্যটনকেন্দ্র গোয়ায় ভ্রমণ করতে পারবেন না পর্যটকেরা। গোয়ার পর্যটন মন্ত্রী মনোহর আজগাঁওকর জানিয়েছেন, গোয়া চায় সবচেয়ে ধনী পর্যটক, যারা বাসে খাবার রান্না করেন না।

মন্ত্রীর ভাষায়, যে পর্যটকেরা গোয়ার সৌন্দর্য নষ্ট করে বা মাদক সেবন করে তাদের গোয়ায় স্বাগত জানানো হবে না। এ ব্যাপারে আরো জোর দিয়ে তিনি বলেছেন, গোয়া পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত। তবে পর্যটকদের অবশ্যই গোয়ার সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। খবর এনডিটিভির।

ভারতের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র আরব উপকূলে অবস্থিত এ ছোট্ট ও সুন্দর রাজ্য গোয়া। অনেক সময় দেখা যায়, বাস ভাড়া করে ভ্রমণে বেরিয়ে পর্যটন এলাকায় খাবার রান্না করেন অনেকে। এ কারণে জনসম্মুখে রান্না করা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

মনোহর আজগাঁওকর বলেন, ‘আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা মাদক সেবন করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়া নষ্ট করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়ায় বাসে খাবার রান্না করে। আমরা ধনী পর্যটক চাই। আমরা এমন পর্যটক চাই যারা আমাদের সংস্কৃতি, ঐতিহ্যকে সম্মান করে। আমরা পর্যটকদের স্বাগত জানাই কিন্তু তাদের সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্যের সীমার মধ্যে গোয়া উপভোগ করা উচিত।’

পর্যটন মন্ত্রী জোর দিয়ে জানান, গোয়াতে মাদক সেবনকারীদের কোনো স্থান নেই। গোয়া মাদকের বিরুদ্ধে, সরকার এর বিরুদ্ধে, তিনি মাদকের বিরুদ্ধে এবং মুখ্যমন্ত্রীও এর বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পর্যটকদের জন্য গোয়ার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে। এমনকি চার্টার্ড ফ্লাইট পুনরায় চালু করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে

গোয়ায় যেতে পারবেন না দরিদ্ররা

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৮ নভেম্বর, ২০২১ | ৬:৪১ 33 ভিউ

ধনী না হলে ইচ্ছে থাকলেও ভারতের দর্শনীয় পর্যটনকেন্দ্র গোয়ায় ভ্রমণ করতে পারবেন না পর্যটকেরা। গোয়ার পর্যটন মন্ত্রী মনোহর আজগাঁওকর জানিয়েছেন, গোয়া চায় সবচেয়ে ধনী পর্যটক, যারা বাসে খাবার রান্না করেন না। মন্ত্রীর ভাষায়, যে পর্যটকেরা গোয়ার সৌন্দর্য নষ্ট করে বা মাদক সেবন করে তাদের গোয়ায় স্বাগত জানানো হবে না। এ ব্যাপারে আরো জোর দিয়ে তিনি বলেছেন, গোয়া পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত। তবে পর্যটকদের অবশ্যই গোয়ার সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। খবর এনডিটিভির। ভারতের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র আরব উপকূলে অবস্থিত এ ছোট্ট ও সুন্দর রাজ্য গোয়া। অনেক সময় দেখা যায়, বাস ভাড়া করে ভ্রমণে বেরিয়ে পর্যটন এলাকায় খাবার রান্না করেন অনেকে। এ কারণে জনসম্মুখে রান্না করা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মনোহর আজগাঁওকর বলেন, ‘আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা মাদক সেবন করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়া নষ্ট করে। আমরা এমন পর্যটক চাই না যারা গোয়ায় বাসে খাবার রান্না করে। আমরা ধনী পর্যটক চাই। আমরা এমন পর্যটক চাই যারা আমাদের সংস্কৃতি, ঐতিহ্যকে সম্মান করে। আমরা পর্যটকদের স্বাগত জানাই কিন্তু তাদের সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্যের সীমার মধ্যে গোয়া উপভোগ করা উচিত।’ পর্যটন মন্ত্রী জোর দিয়ে জানান, গোয়াতে মাদক সেবনকারীদের কোনো স্থান নেই। গোয়া মাদকের বিরুদ্ধে, সরকার এর বিরুদ্ধে, তিনি মাদকের বিরুদ্ধে এবং মুখ্যমন্ত্রীও এর বিরুদ্ধে। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পর্যটকদের জন্য গোয়ার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে। এমনকি চার্টার্ড ফ্লাইট পুনরায় চালু করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: