ঘণ্টাব্যাপী ফের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও মেসেঞ্জার ডাউন - ডোনেট বাংলাদেশ

বিশ্বব্যাপী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর অ্যাপ মেসেঞ্জারে ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদান-প্রদানের সেবা বন্ধের ঘটনা ঘটেছে। হঠাৎ সমস্যা দেখতে পেয়ে এ নিয়ে ফেসবুক ও টুইটারসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে কথা বলতে শুরু করেন ব্যবহারকারীরা। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের প্রতিবেদনে এসব কথা জানানো হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যার পর থেকেই বিভিন্ন দেশ থেকে ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর প্ল্যাটফর্ম মেসেঞ্জার ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদানপ্রদান সেবা ব্যাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের প্রতিষ্ঠান ফেসবুক এ নিয়ে তৃতীয়বার বন্ধের সম্মুখীন হলো। এর আগে অবশ্য মূল কোম্পানির নামও ফেসবুক করপোরেশন ছিল। সম্প্রতি মূল কোম্পানির নাম বদলে মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশন রাখার ঘোষণা দেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ।

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার পূর্বাঞ্চলীয় সময় অনুযায়ী, বুধবার বেলা ২টার দিকে এ ঘটনার সূত্রপাত বলে জানিয়েছে ওয়েবসাইট বন্ধের হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহকারী ‘ডাউনডিটেক্টর’।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের একজন মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেন, ‘কিছু ব্যবহারকারীদের অনেকে মেসেঞ্জার, ওয়ার্কপ্লেস চ্যাট ও ইনস্টাগ্রামের ডিরেক্ট মেসেজ (ডিএম) ব্যবহারে সমস্যা দেখেছেন।’

গত ৪ অক্টোবর প্রায় ছয় ঘণ্টা বন্ধ ছিল ফেসবুক বন্ধ ছিল। কয়েকদিন পর ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, মেসেঞ্জার ও হোয়াটস্যাপ সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বন্ধ ছিল।

এবারের বন্ধ হওয়া নিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জার তাদের টুইটার একাউন্ট পোস্টে বলে, ‘না, আপনার ওয়াইফাই বন্ধ হয়নি। আমরা যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার চেষ্টা করছি।’ ওই পোস্টে মেসেঞ্জারডাউন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছে।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে ফেসবুক মেসেঞ্জারের এই টুইট পোস্টের সত্যতা জানিয়েছেন।

অন্যদিকে, ইনস্টাগ্রাম এক পোস্টে এ পরিস্থিতির জন্য ক্ষমা চেয়েছে

বিশ্বব্যাপী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর অ্যাপ মেসেঞ্জারে ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদান-প্রদানের সেবা বন্ধের ঘটনা ঘটেছে। হঠাৎ সমস্যা দেখতে পেয়ে এ নিয়ে ফেসবুক ও টুইটারসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে কথা বলতে শুরু করেন ব্যবহারকারীরা। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের প্রতিবেদনে এসব কথা জানানো হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যার পর থেকেই বিভিন্ন দেশ থেকে ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর প্ল্যাটফর্ম মেসেঞ্জার ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদানপ্রদান সেবা ব্যাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের প্রতিষ্ঠান ফেসবুক এ নিয়ে তৃতীয়বার বন্ধের সম্মুখীন হলো। এর আগে অবশ্য মূল কোম্পানির নামও ফেসবুক করপোরেশন ছিল। সম্প্রতি মূল কোম্পানির নাম বদলে মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশন রাখার ঘোষণা দেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ।

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার পূর্বাঞ্চলীয় সময় অনুযায়ী, বুধবার বেলা ২টার দিকে এ ঘটনার সূত্রপাত বলে জানিয়েছে ওয়েবসাইট বন্ধের হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহকারী ‘ডাউনডিটেক্টর’।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের একজন মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেন, ‘কিছু ব্যবহারকারীদের অনেকে মেসেঞ্জার, ওয়ার্কপ্লেস চ্যাট ও ইনস্টাগ্রামের ডিরেক্ট মেসেজ (ডিএম) ব্যবহারে সমস্যা দেখেছেন।’

গত ৪ অক্টোবর প্রায় ছয় ঘণ্টা বন্ধ ছিল ফেসবুক বন্ধ ছিল। কয়েকদিন পর ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, মেসেঞ্জার ও হোয়াটস্যাপ সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বন্ধ ছিল।

এবারের বন্ধ হওয়া নিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জার তাদের টুইটার একাউন্ট পোস্টে বলে, ‘না, আপনার ওয়াইফাই বন্ধ হয়নি। আমরা যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার চেষ্টা করছি।’ ওই পোস্টে মেসেঞ্জারডাউন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছে।

মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে ফেসবুক মেসেঞ্জারের এই টুইট পোস্টের সত্যতা জানিয়েছেন।

অন্যদিকে, ইনস্টাগ্রাম এক পোস্টে এ পরিস্থিতির জন্য ক্ষমা চেয়েছে

ঘণ্টাব্যাপী ফের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও মেসেঞ্জার ডাউন

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৮ নভেম্বর, ২০২১ | ৫:৪৭ 37 ভিউ

বিশ্বব্যাপী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর অ্যাপ মেসেঞ্জারে ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদান-প্রদানের সেবা বন্ধের ঘটনা ঘটেছে। হঠাৎ সমস্যা দেখতে পেয়ে এ নিয়ে ফেসবুক ও টুইটারসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে কথা বলতে শুরু করেন ব্যবহারকারীরা। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের প্রতিবেদনে এসব কথা জানানো হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যার পর থেকেই বিভিন্ন দেশ থেকে ফেসবুকের বার্তা পাঠানোর প্ল্যাটফর্ম মেসেঞ্জার ও ইনস্টাগ্রামের বার্তা আদানপ্রদান সেবা ব্যাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়। মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের প্রতিষ্ঠান ফেসবুক এ নিয়ে তৃতীয়বার বন্ধের সম্মুখীন হলো। এর আগে অবশ্য মূল কোম্পানির নামও ফেসবুক করপোরেশন ছিল। সম্প্রতি মূল কোম্পানির নাম বদলে মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশন রাখার ঘোষণা দেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার পূর্বাঞ্চলীয় সময় অনুযায়ী, বুধবার বেলা ২টার দিকে এ ঘটনার সূত্রপাত বলে জানিয়েছে ওয়েবসাইট বন্ধের হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহকারী ‘ডাউনডিটেক্টর’। মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের একজন মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেন, ‘কিছু ব্যবহারকারীদের অনেকে মেসেঞ্জার, ওয়ার্কপ্লেস চ্যাট ও ইনস্টাগ্রামের ডিরেক্ট মেসেজ (ডিএম) ব্যবহারে সমস্যা দেখেছেন।’ গত ৪ অক্টোবর প্রায় ছয় ঘণ্টা বন্ধ ছিল ফেসবুক বন্ধ ছিল। কয়েকদিন পর ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, মেসেঞ্জার ও হোয়াটস্যাপ সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বন্ধ ছিল। এবারের বন্ধ হওয়া নিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জার তাদের টুইটার একাউন্ট পোস্টে বলে, ‘না, আপনার ওয়াইফাই বন্ধ হয়নি। আমরা যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার চেষ্টা করছি।’ ওই পোস্টে মেসেঞ্জারডাউন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছে। মেটা প্ল্যাটফর্মস করপোরেশনের মুখপাত্র ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে ফেসবুক মেসেঞ্জারের এই টুইট পোস্টের সত্যতা জানিয়েছেন। অন্যদিকে, ইনস্টাগ্রাম এক পোস্টে এ পরিস্থিতির জন্য ক্ষমা চেয়েছে

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: